টাইমলাইনবিনোদন

‘নগ্নতা অপরাধ হলে সব নাগা বাবাদের গ্রেফতার করা উচিত’, মিলিন্দ সোমনের হয়ে সোচ্চার পূজা বেদী

বাংলাহান্ট ডেস্ক: গোয়া সমুদ্র সৈকতে নগ্ন হয়ে দৌড়ের জন‍্য ইতিমধ‍্যেই FIR দায়ের হয়েছে প্রখ‍্যাত মডেল মিলিন্দ সোমনের (milind soman) বিরুদ্ধে। এবার মিলিন্দের হয়ে সরব হলেন অভিনেত্রী পূজা বেদী (pooja bedi)। মিলিন্দের ওই নগ্ন দৌড়ের মধ‍্যে কোনো রকম অশ্লীলতা নেই, এমনটাই মন্তব‍্য করে পূজার দাবি, নগ্নতা অপরাধ হলে নাগা বাবাদের গ্রেফতার করা উচিত।

মিলিন্দকে সমর্থন করে পূজা লেখেন, ‘মিলিন্দের ছবির মধ‍্যে কোনো রকম অশ্লীলতা নেই। এটা দেখে যে আরো বেশি কিছু কল্পনা করছে তার মনের মধ‍্যেই অশ্লীলতা রয়েছে। সুপুরুষ, বিখ‍্যাত হওয়া ও দৃষ্টান্ত স্থাপন করাটাই ওঁর অপরাধ। নগ্নতা যদি অপরাধ হয় তাহলে সব নাগা বাবাদের গ্রেফতার করা উচিত। গায়ে ছাই মাখলেই সেটা গ্রহণযোগ‍্য হয়ে যায় না।’


সম্প্রতি নিজের ৫৫ তম জন্মদিন উপলক্ষে সমুদ্র সৈকতে নগ্ন দৌড়ের একটি ছবি শেয়ার করেন মিলিন্দ সোমন। এরপরেই প্রকাশ‍্যে গোয়ার সমুদ্র সৈকতে অশ্লীলতা ছড়ানোর অভিযোগে FIR দায়ের হয় তাঁর বিরুদ্ধে। তবে এই বিষয়ে এখনো কোনো মন্তব‍্য করেননি মিলিন্দ।

দক্ষিণ গোয়ার পুলিস সুপারিনটেনডেন্ট জানান, ভারতীয় দণ্ডবিধির ২৯৪ ও আরো কয়েকটি ধারায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে মডেলের বিরুদ্ধে। অশ্লীলতা ছড়ানোর অভিযোগেই এই FIR দায়ের হয়েছে বলে জানান তিনি। তবে নেটিজেনদের একাংশের বক্তব‍্য কিছুটা বাধ‍্য হয়েই মিলিন্দের বিরুদ্ধে FIR দায়ের করেছে পুলিস।

আসলে সম্প্রতি গোয়ায় গিয়ে অর্ধ নগ্ন হয়ে ভিডিও শুট করার অভিযোগে FIR দায়ের হয় পুনম পাণ্ডের বিরুদ্ধে। অশ্লীল ভিডিও শুট করার অভিযোগে কানাকোনা পুলিস স্টেশনে অভিনেত্রী পুনম পাণ্ডের বিরুদ্ধে FIR দায়ের করেন এক অজ্ঞাত ব‍্যক্তি। এছাড়া চাপোলি ড‍্যামে অশ্লীল ভিডিও শুটের অভিযোগে পুনম পাণ্ডের বিরুদ্ধে গোয়া ফরোয়ার্ড পার্টির মহিলা দল অভিযোগ দায়ের করে।

অপরদিকে সম্পূর্ণ নগ্ন হয়ে সমুদ্র সৈকতে দৌড়ানো সত্ত্বেও কোনো অভিযোগই ওঠে না মিলিন্দের বিরুদ্ধে। এরপরেই সোশ‍্যাল মিডিয়ায় তোলপাড় শুরু হয়। পুরুষ নগ্ন হলে তা প্রশংসার যোগ‍্য অথচ নারী নগ্ন হলে ছিছিক্কার, এমন পার্থক‍্য কেন? উঠতে থাকে প্রশ্ন। এরপরেই বাধ‍্য হয়ে মিলিন্দের বিরুদ্ধে ব‍্যবস্থা নেয় গোয়া পুলিস।

Back to top button