টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

টাকা নিচ্ছে শুভেন্দু, চারিদিকে পোস্টারে ছয়লাপ! ঘোর অস্বস্তিতে বিরোধী দলনেতা

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ নারদায় (Narada) প্রকাশ্যে টাকা নিতে দেখা গিয়েছিল তৎকালীন তৃণমূল কংগ্রেস (Trinamool Congress) নেতা শুভেন্দু অধিকারীকে (Suvendu Adhikari)। বর্তমানে অবশ্য বদলেছে রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট। তৃণমূল ছেড়ে সম্প্রতি বিজেপিতে (BJP) যোগদান করেছেন তিনি। তবে এ সংক্রান্ত ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিগত বেশ কিছু সময় ধরে শুভেন্দু এবং পদ্মফুল শিবিরকে আক্রমণ করে চলেছে তৃণমূল শিবির। তাদের প্রশ্ন, “নারদায় প্রকাশ্যে টাকা নিতে দেখা গেলেও এখনো পর্যন্ত শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি কেন?” আর এদিন এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে আবারো একবার দেখা গেল তৃণমূল-বিজেপি তরজা।

আজ বীরভূমের সাঁইথিয়ায় সভা করার কথা বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর। বিগত কয়েকদিন ধরেই সেই সংক্রান্ত প্রস্তুতি করে চলেছে বিজেপি। তবে এর মাঝেই গতকাল থেকে বীরভূমে স্টেশন, সভামঞ্চের পাশাপাশি অন্যান্য একাধিক স্থানে বিজেপি নেতার নামে একাধিক পোস্টার পড়তে দেখা গিয়েছে, যা নিয়ে শুরু হয় চাঞ্চল্য। উল্লেখ্য, পোস্টারগুলিতে নারদা কাণ্ডে শুভেন্দু অধিকারীর প্রকাশ্যে টাকা নেওয়ার দৃশ্যই সামনে উঠে এসেছে। শুধু তাই নয়জ পোস্টারের নিচে শুভেন্দুকে উল্লেখ করে লেখা হয়েছে, “চোর ধরো জেল ভরো।” এরপরেই গোটা এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে।

বিজেপির দাবি, “এ সকল ঘটনার পেছনে তৃণমূলের হাত রয়েছে। বিজেপি জেলা সভাপতি জানান, “আজ শুভেন্দু অধিকারীর সভা নিয়ে গোটা এলাকাবাসীর মধ্যে চরম উন্মাদনা রয়েছে। তবে তৃণমূল কংগ্রেস চাইছেজ এই অনুষ্ঠানটি নষ্ট করতে। সেই কারণেই অশান্তি ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য তারা এলাকায় এরকম পোস্টার লাগাচ্ছে।” তবে অপরদিকে তৃণমূলের দাবি, “আমাদের দলের তরফ থেকে কেউ এই কাজ করেনি। কোন মানুষের মনে ক্ষোভ থাকতে পারে, তাই তারা এই কাজ করেছে।”

Related Articles

Back to top button