টাইমলাইনভারত

মোদী অমিত দিচ্ছেন রাম মন্দির, শরণার্থীদের মাথাগোঁজার বাসস্থান, অন্যদিকে ‘রেপ ইন ইন্ডিয়া’ বলেও ক্ষমা চাইতে নারাজ রাহুল!

 

বাংলা হান্ট ডেস্ক: নাগরিকপঞ্জি বিল নিয়ে ঘরে বাইরে চাপের মুখে শাসক-বিরোধী উভয়পক্ষ। বিষয়টা এতটা সহজ কখনোই হয়ে উঠেনি যখন দিল্লি থেকে কলকাতা সমস্ত সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের বসে ছিল বিষয়টি নিয়ে। কিন্তু এই বিলের অপব্যাখ্যা যে প্রতিমুহূর্তে হয়েছে তা অনেকেই হয়ত আন্দাজ করতে পেরেছিল। যেখানে শুধুমাত্র শরণার্থীদের জায়গা দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। কিন্তু কোন মুসলিমকে তাড়ানোর কথা বলা হয়নি। সেখানে কেন এত উগ্র তান্ডব পারছেনা অনেক ওয়াকিবহাল মহল।কিন্তু এই বিষয়টিকে বাদ দিলেও অন্য একটি বিষয় তোলপাড় দিল্লি রাজ্য রাজনীতি।

একদিকে যখন রেপ ইন ইন্ডিয়া বলে রাহুল গান্ধী দেশের জনগণের কাছে অনেকটা হেট হয়ে গিয়েছেন। তখন তিনি কিন্তু ক্ষমা চাইতে নারাজ। এ বিষয়ে লোকসভা থেকে আরম্ভ করে সমস্ত জায়গায় উত্তাল। কিন্তু কখনো বা সাভারকারের নাম নিয়ে তিনি বিতর্ক সৃষ্টি করেছেন। আর এর মাঝেই নাগরিকপঞ্জি আইনে পরিণত হয়ে দেশকে এক মজবুত স্থিতি। তখন অন্য একটি বিষয় নিয়ে মুখ খুললেন অন্য সময় কথা না বলা দেশের অন্যতম প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং। এদিন মনমোহন বলেন, “গত ছ’বছর ধরে দেশের মানুষকে ভুল পথে পরিচালিত করছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।”

“ছ’বছর আগে প্রধানমন্ত্রী ভুয়ো প্রতিশ্রুতি দিয়ে ক্ষমতায় এসেছিলেন। বলেছিলেন ২০২৪ সালের মধ্যে দেশে পাঁচ ট্রিলিয়ন ডলারের অর্থনীতি হবে। পাঁচ বছরের মধ্যে কৃষকদের রোজগার দ্বিগুণ করে দেওয়ার কথা বলেছিলেন। প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন দেশের দু’কোটি বেকারের চাকরি হবে। এখন বোঝা যাচ্ছে এ সবটাই মিথ্যের ফানুস ছিল। একটাও প্রতিশ্রুতি পূরণ করতে পারেননি।”

Related Articles

Back to top button