টাইমলাইনভারতরাজনীতি

ট্রাক্টর জ্বালিয়ে কৃষি আইনের প্রতিবাদের পর ট্রাক্টরে চেপে প্রতিবাদ কংগ্রেসের, নেতৃত্ব দিলেন রাহুল গান্ধী

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ কেন্দ্রের প্রস্তাবিত কৃষি বিলের প্রতিবাদে কংগ্রেস প্রাক্তন সভাপতি রাহুল গান্ধী (Rahul gandhi) এক বিশাল ট্রাক্টর সমাবেশের আয়োজন করেছিলেন। প্রায় ৫ হাজার ট্রাক্টর নিয়ে হাজার হাজার কংগ্রেস কর্মী পাঞ্জাবের মোগা থেকে একটি রোড শোয়ের মাধ্যমে এই সভায় অংশগ্রহণ করেছিলেন।

এই সভায় কংগ্রেসের বিধায়ক, মন্ত্রী এবং প্রবীণদের যোগদান করতে বলা হয়েছিল। পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিংয়ের এবং নভ্যোজিত সিং সিধুকে প্রায় ১৪ মাস পর একসঙ্গে সভায় দেখা গেল।

অনুষ্ঠান সূচী
৪ ঠা অক্টোবর সকাল ১১ টায় ওয়াল বদলের কলনীতে জনসভায় শুরু হয়ে রাইকোটের জাটপুরায় জাগরাওন, চকর, লাক্কা এবং লুধিয়ায় মানুকারে এই জনসভা শেষ হয়। ৫ ই অক্টোবর পরবর্তী রোড শো সংগরের বরনালা চক শহরে শুরু হয়ে ভবানীগড়ে যাবেন। ৬ ই অক্টোবর রাহুল গান্ধী পতিয়ালার দুধান সাধে অনুষ্ঠিত জনসভায় কৃষকদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখবেন। এরপর কংগ্রেসের রোড শো পিহোভা সীমান্ত দিয়ে হরিয়ানায় প্রবেশ করবে।

রবিবারের এই সভায় দাঁড়িয়ে কেন্দ্র সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দেগে রাহুল গান্ধী বলেন, ‘‌কংগ্রেস সরকার যেদিন কেন্দ্রে ক্ষমতায় আসবে, সেদিন এই কৃষি বিল বাতিল করা হবে, একথা আমি গ্যারান্টি দিয়ে বলতে পারি। আস্তাকুঁড়ে ছুড়ে ফেলে দেব এই তিনটি কালা কানুনকে। প্রধানমন্ত্রী মনে করছেন এই আইনে কৃষকরা খুশি হয়েছে। তাহলে তারা কেন আন্দোলন করতে নেমছে? এই বিল যদি কৃষকদের স্বার্থেই করা হয়ে থাকে, তাহলে কেন তা নিয়ে সংসদে বিস্তারিত জানানো হল না?’

কেন্দ্রের প্রস্তাবিত এই কৃষি বিলের প্রতিবাদে রাজ্যসভায় তৃণমূলের সাংসদ থেকে শুরু করে কংগ্রেস নেতৃত্ব সকলেই বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে। এমনকি এই কৃষি বিলের প্রতিবাদে কেন্দ্রের বিরধিতায় অকালি দলের মন্ত্রী হরসিমরত কৌর বাদলও পদত্যাগ করেছিলেন। গোটা ভারতের এই নিয়ে নানান বিক্ষোভও প্রদর্শিত হয়েছে।

Back to top button