টাইমলাইনখেলাক্রিকেট

রঞ্জি জিতে নজির মধ্যপ্রদেশ কোচ চন্দ্রকান্তের, ‘রঞ্জি ট্রফির ফার্গুসন’ আখ্যা দিলেন দীনেশ কার্তিক

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক: সামনে প্রতিপক্ষ ছিল ৪১ বার এই প্রতিযোগিতার বিজয়ী মুম্বাই। সেমিফাইনালে ছাড়া উত্তরপ্রদেশকে দূরমুশ করে ফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করেছে। তার ওপর ফর্মে রয়েছে পৃথ্বী শ, যশস্বী জয়সওয়াল, সারফরাজ খানরা। রঞ্জি ট্রফির ফাইনালে খাতায়-কলমে তাই মুম্বাই কে এগিয়ে রাখছিল বিশেষজ্ঞরা। কিন্তু যাবতীয় হিসাব কিতাব কে বৃষভাবতী নদীর জলে ভাসিয়ে ইতিহাস তৈরি করেছে মধ্যপ্রদেশ ২০২২ সালের রঞ্জি ট্রফি নিজেদের নামে করে নিয়েছেন রজত পতিদাররা।

এই ট্রফি জয় সবচেয়ে বিশেষ মুহূর্ত যার কাছে তিনি হলেন মধ্যপ্রদেশের প্রধান কোচ চন্দ্রকান্ত পন্ডিত। নিজেও একসময় ক্রিকেটার ছিলেন। মধ্যপ্রদেশের পাশাপাশি ভারতীয় জার্সিতেও তিনি পাঁচটি টেস্ট এবং ৩৬টি ওয়ান ডে ম্যাচ খেলেছেন। প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে আট হাজারের ওপর রান রয়েছে তার। তার অধিনায়কত্বেই ১৯৯৮/৯৯ মরশুমে রঞ্জি ট্রফির ফাইনাল খেলেছিল মধ্যপ্রদেশ। কিন্তু সেই বার তাদের কর্ণাটকের কাছে হারতে হয়েছিল।

খেলোয়াড় হিসেবে রঞ্জি ফাইনালে চূড়ান্ত হতাশার মুখ দেখেছিলেন। ২৩ বছর পর খেলোয়াড় হিসেবে তা হলেও কোচ হিসেবে সেই আফসোসটা পূরণ করলেন। রবিবার ৬ উইকেটে মুম্বাইকে হারিয়েছে মধ্যপ্রদেশ। যেন একটি বৃত্ত সম্পূর্ণ করেছেন চন্দ্রকান্ত। রঞ্জি ট্রফির ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ট্রফি জয়ের স্বাদ পেয়েছে মধ্যপ্রদেশ।

এর আগে মুম্বাই এবং বিদৰ্ভকে নিজের কোচিংয়ে রঞ্জি ট্রফি চ্যাম্পিয়ন করেছিলেন চন্দ্রকান্ত। মধ্যপ্রদেশকে চ্যাম্পিয়ন করানোর সাথে সাথে তিনটি দলকে নিজের কোচিংয়ে রঞ্জি ট্রফি জেতালেন তিনি। তাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ওয়াসিম জাফর থেকে শুরু করে অমিত মিশ্রার মতো তারকা ক্রিকেটাররা। তবে তাকে সবচেয়ে বড় কমপ্লিমেন্ট দিয়েছেন দীনেশ কার্তিক। মধ্যপ্রদেশ রঞ্জিত এর সাথেসাথে দীনেশ কার্তিক টুইট করে নিজের চন্দন স্যারকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। বলেছেন তার টিমের সকল খেলোয়াড়ের মানসিকতা বুঝে নেওয়ার ক্ষমতার কথা এবং সেই মতো তাদেরকে চালনা করার কথা। ইংল্যান্ডের প্রবাদপ্রতিম ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের তারকা ম্যানেজার স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসনের সঙ্গে তাকে তুলনা করেছেন দীনেশ কার্তিক।

Related Articles

Back to top button