টাইমলাইনবিনোদন

বিয়ের কথা সরাসরি না হলেও সুশান্তের সন্তানের মা হতে চেয়েছিলাম: রিয়া চক্রবর্তী

বাংলাহান্ট ডেস্ক: স্বপ্নে দেখা দিয়ে সম্পর্কের বিষয়ে সত‍্যি বলতে বলেছেন সুশান্ত, অবশেষে মুখ খুললেন রিয়া চক্রবর্তী (rhea chakraborty)। সম্প্রতি এক সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ‍্যমের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে সুশান্ত সিং রাজপুত (sushant singh rajput) সম্পর্কে অনেক কথাই খোলসা করেন রিয়া।

রিয়ার দাবি, সুশান্ত তাঁকে স্বপ্নে দেখা দিয়ে তাঁদের সম্পর্কের সত‍্যিটা সামনে আনতে বলেন। তিনি জানান, ২০১৩ সালে কেরিয়ারের একেবারে শুরু দিকে সুশান্তের সঙ্গে আলাপ হয় তাঁর। তখন তাঁরা শুধুই ভাল বন্ধু ছিলেন। জিম, অ্যাওয়ার্ড শোতে প্রায়ই দেখা সাক্ষাৎ হত। তখন থেকেই নাকি সুশান্তকে অন‍্যরকম লাগতে শুরু করে বলে জানান রিয়া।


এরপর গত বছর রোহিনী আইয়ারের পার্টিতে সুশান্ত তাঁকে প্রেমের প্রস্তাব দেন বলে জানান রিয়া। বিয়ে প্রসঙ্গে অভিনেত্রী বলেন, “সুশান্ত ও আমি বিয়ের ব‍্যাপারে কখনও সরাসরি কথা বলিনি। কিন্তু আমাদের সম্পর্ক দীর্ঘদিনের ছিল। এখন মনে হয় পরের জন্মেও থাকবে আমাদের সম্পর্ক। আমি সবসময় বলতাম, আমার একটা ছোট্ট সুশান্ত চাই, একদম ওর মতো দেখতে হবে। খুব ব‍্যক্তিগত পর্যায়ে এমন কথা হত আমাদের। দম্পতির মতোই কথা বলতাম আমরা।”

সাক্ষাৎকারে রিয়া ফের দাবি করেন, অবসাদে ভুগছিলেন সুশান্ত। তাঁর বাইপোলার ডিসঅর্ডার ছিল। লকডাউনে সমস‍্যা আরও বাড়ে বলে দাবি করেন রিয়া। ৩রা জুনই নাকি সুশান্তের চিকিৎসক কেরসি ছাবরার সঙ্গে অভিনেতার কথা বলান রিয়া। তখনই তিনি জানান সুশান্তের শীঘ্রই ওষুধ শুরু করা প্রয়োজন।

৮ জুন হঠাৎ সুশান্তের বাড়ি থেকে বেরিয়ে কেন আসেন রিয়া? অভিনেত্রী দাবি করেন, সুশান্ত নাকি তাঁর প্রতি উদাসীন হয়ে পড়েছিলেন। বারবার তাঁকে বাড়ি চলে যেতে বলতেন। রিয়ার নিজেরও মানসিক সমস‍্যা হচ্ছিল।

তাঁর কথায়, “৮ জুন মনোবিদের সঙ্গে একটা থেরাপি সেশন ছিল আমার। ঠিক করেছিলাম সুশান্তের বাড়ি থেকেই কথা বলব। কিন্তু সুশান্ত বলল ওর দিদি আসছে তাই আগেই চলে যেতে হবে। আমি বললাম, মীতু দি আসুক তারপরেই তিনি যাবেন। সুশান্তের পরিবারের কেউই আমাকে পছন্দ করতেন না। সেটা অবশ‍্য এখন সবাই আরও ভাল করে বুঝতে পারছে।”

রিয়া জানান, ৮ জুনই সুশান্তের বাড়ি ছেড়ে বেরিয়ে এসেছিলেন তিনি। তাঁর অসুস্থতায় সুশান্ত পাশে থাকেননি বলে খারাপ লেগেছিল বলে জানান রিয়া।

Back to top button