টাইমলাইনবিনোদন

কেরিয়ারে মাত্র সাতটি ছবি, সাতটিই ফ্লপ! অভিনয়েও চূড়ান্ত ব‍্যর্থ রিয়া চক্রবর্তী

বাংলাহান্ট ডেস্ক: অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের  মৃত‍্যুর পর থেকেই চর্চায় উঠে এসেছেন বঙ্গকন‍্যা রিয়া চক্রবর্তী (rhea chakraborty)। অবশ‍্য আগে থেকেই মাঝে মাঝে সংবাদ শিরোনামে থাকতে দেখা গিয়েছে সুশান্ত রিয়াকে। একসঙ্গে পার্টি, জিম, রেস্তোরাঁর সামনে পাপারাজির ক‍্যামেরাবন্দি হয়েছেন তাঁরা। এমনকি একসঙ্গে দুজনের লাদাখ যাওয়ার খবরও সংবাদ শিরোনামে উঠে আসে।
১৯৯২ সালের ১লা জুলাই বেঙ্গালুরুতে একটি বাঙালি পরিবারে জন্ম হয় রিয়ার। অম্বালার আর্মি স্কুল থেকে পড়াশোনা করেন তিনি। ২০০৯ সালে এম টিভির রিয়েলিটি শো ‘টিন ডিভা’ দিয়ে কেরিয়ার শুরু করেন রিয়া। সেই শোতে দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেন তিনি। এরপর আরও কয়েকটি শোতে সঞ্চালকের কাজ করেন রিয়া। এখনও পর্যন্ত মোট সাতটি ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। কিন্তু এর মধ‍্যে একটি ছবিও বক্স অফিসে সাফল‍্যের মুখ দেখেনি।


তুনেগা তুনেগা– ২০১২ সালে অভিনয় জগতে পা রাখেন রিয়া। তেলুগু ছবি ‘তুনেগা তুনেগা’র মাধ্যমে প্রথম অভিনয়ে হাতেখড়ি হয় রিয়ার। এম এস রাজু ছিলেন ছবির পরিচালনার দায়িত্বে এবং নায়কের ভূমিকায় ছিলেন সুমন্ত রাজু। ছোটবেলার ঘৃণা কিভাবে বড় হয়ে প্রেমে পরিণত হয় সেই নিয়েই ছবির গল্প। কিন্তু বক্স অফিসে একেবারেই চলেনি ছবিটি।


মেরে ড্যাড কি মারুতি– এরপরের বছরেই হিন্দি ছবি ‘মেরে ড্যাড কি মারুতি’ ছবিতে অভিনয় করেন রিয়া। সাকিব সালিম ও ছবিতে তাঁর বাবা রাম কাপুরকে কেন্দ্র করেই ছিল ছবির গল্প। কিন্তু রিয়ার ভূমিকাও গুরুত্বপূর্ণ ছিল এই ছবিতে। সিনেমাটিকে গাড়ির বিজ্ঞাপনের তকমা দেয় সিনেপ্রেমীরা এবং শেষমেষ ছবিটি ফ্লপ হয়।


সোনালি কেবল– ২০১৪ তে মুক্তি পায় এই ছবি। সোনালি নামের একটি মেয়ের মুম্বইতে ইন্টারনেট সার্ভিসের কাজ নিয়ে ছিল ছবির গল্প। আলি ফজলের বিপরীতে রিয়া গুরুত্বপূর্ণ একটি চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। কিন্তু ছবির গান দর্শকদের পছন্দ হলেও ছবিটি ফ্লপ করে।


হাফ গার্লফ্রেন্ড– অর্জুন কাপুর ও শ্রদ্ধা কাপুর অভিনীত ছবি হাফ গার্লফ্রেন্ড তেমন ভাল প্রতিক্রিয়া পায়নি সিনেপ্রেমীদের থেকে। এই ছবির দ্বিতীয় ভাগে একটি ক‍্যামিও চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন রিয়া। অর্জুনের সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করলেও তিনি অলক্ষ‍্যেই থেকে যান।


দোবারা: সি ইওর ইভল– হলিউড ছবি ‘অকিউলাস’ এর রিমেক ছিল এই ছবি। হুমা কুরেশি ও তাঁর ভাই সাকিব সালিম অভিনয় করেছিলেন ছবিতে। রিয়া সহভিনেত্রী হিসেবে অভিনয় করলেও স্ক্রিনস্পেস কম থাকায় চরিত্রটি ক‍্যামিও হয়ে যায় শেষ পর্যন্ত। হলিউডের হুবহু কপি হওয়ায় বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়ে ছবিটি।


ব‍্যাঙ্ক চোর– প্রথম থেকেই ব‍্যর্থতার মুখ দেখতে থাকে এই ছবি। রিতেশ দেশমুখ ও বিবেক ওবেরয়ের বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন রিয়া। কিন্তু অভিনয়েও তিনি ছাপ ফেলতে পারেননি।


জলেবি– ২০১৮ তে ‘জলেবি’ ছবিতে প্রধান নায়িকার চরিত্রে অভিনয় করেন রিয়া। ছবিটি বাংলা ছবি ‘প্রাক্তন’ এর রিমেক ছিল। তবে মহেশ ভাট পরিচালিত ছবিটি বক্স অফিসে ফ্লপ হলেও গানগুলি বেশ পছন্দ হয় সিনেপ্রেমীদের।

Back to top button
Close