টাইমলাইনখেলাক্রিকেট

হোলির দিনে মৌলবাদীদের রোষের মুখে রোহিত শর্মা, ঋত্বিকাকে বলা হল ‘নিজের কুকুর সামলা”

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক: হোলির শুভেচ্ছা জানাতে গিয়ে অপমানিত হলেন রোহিত শর্মা এবং তার স্ত্রী ঋত্বিকা সাজদেহ। রঙের উৎসবের শুভেচ্ছা জানাতে একটি ভিডিও রেকর্ড করেছিলেন ভারতীয় অধিনায়ক। ভিডিয়োতে দেখা যায় যে জনগণকে শুভেচ্ছা জানাতে গিয়ে বারবার হোঁচট খাচ্ছেন রোহিত। তারপরও একের পর এক টেক দিয়ে যাচ্ছেন মুম্বই অধিনায়ক। তা দেখেই চোটে লাল কট্টর হিন্দুত্ববাদীরা। ভিডিয়োটির তলায় ক্যাপশন নিয়ে সোশ্যাল সাইটে বিক্ষোভ দেখা যায় হিন্দুত্ববাদীদের নেটিজেনদের মধ্যে একাংশ তৈরি করে ফেলে হ্যাশট্যাগ- #RitikaApnaKuttaSambhal

ভিডিয়োটিতে দেখা যায় হিন্দুধর্মের এই বিশেষ উৎসবের শুভেচ্ছা জানাতে গিয়ে বারবার ঢোঁক গিলছেন হিটম্যান। তারপর তার স্ত্রী ঋত্বিকা তাকে বোঝান যে কিভাবে হোলির শুভেচ্ছা জানানো উচিত। যদিও গোটা ঘটনাটাই তারা স্ত্রী এবং হিটম্যান মজার ছলে করেছিলেন। কিন্তু দেখা যাচ্ছে সোশ্যাল ভিডিয়ায় একটি বড় সংখ্যক মানুষের মধ্যে কোনটি মজা আর কোনটি গুরুতর বিষয় তা বোঝার ক্ষমতা নেই।

ভিডিয়োটি পোস্ট করে তার আইপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজি মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের পক্ষ থেকে লেখা হয় , ‘ক্যাপ্টেন স্যার আপনি এটা কোন লাইনে চলে এলেন? শেষপর্যন্ত ৫৩২৬১টি টেকনেওয়ার নেওয়ার পর সকলকে হোলির শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ক্যাপ্টেন রোহিত শর্মা।’ আসলে গোটা ক্যাপশনটি অক্ষয় কুমার, ক্যাটরিনা কাইফ অভিনীত ওয়েলকাম ছবির একটি দৃশ্যের ডায়লগ। কিন্তু সেই ভিডিয়োটির মজা না বুঝে ক্যাপশন নিয়ে সোশ্যাল সাইটে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন হিন্দুত্ববাদীদের একটি বড় অংশ।

রোহিত শর্মা নিজের পোস্ট করা ভিডিয়োটির ক্যাপশন দিয়েছিলেন “সকলকে হোলির শুভেচ্ছা। সবাই আনন্দ করুন। কিন্তু আমাদের পোষ্য বন্ধুদের কথা মনে রাখবেন। তাদের গায়ে রং দেবেন না।” এই ক্যাপশন দেখে অনেক হিন্দুত্ববাদীদের দাবি, যিনি খেলার মাঝে গোমাংস খান, তাঁর মুখে সারমেয়দের নিয়ে এই দুশ্চিন্তা করা উচিত নয়। তাই তারা হ্যাশট্যাগ “ঋত্বিকা আপনা কুত্তা সামাল (#RitikaApnaKuttaSambhal)।”-কে ভাইরাল করেছেন।

Related Articles

Back to top button