টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

প্রসেনজিতের পর ঋতুপর্না সেনগুপ্তকে তলব ইডির

বাংলাহান্ট ডেস্ক: রোজভ্যালি কাণ্ডে টলিউডের আরও এক হেভিওয়েট তারকার নাম জড়াল। গতকালই অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় কে ডেকে পাঠিয়েছিলেন ইডি। এবার ইডি ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তকে তলব করলেন। এর আগেই রোজভ্যালি কাণ্ডে ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তের জড়িত থাকার কানাঘুষো শোনা গিয়েছিল। এবার সেই কানাঘুষো কে আরও একটু উসকে দিয়ে ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তকে তলব করল ইডি।

ইডির তরফ থেকে জানা গিয়েছে, গৌতম কুন্ডু চিটফান্ড সংস্থার একাউন্ট থেকে ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তর বিদেশ যাওয়ার টিকিট খরচ মেটানোর প্রমাণ পাওয়া গেছে। অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তর মধ্যস্থতাতেই নাকি টলিউডের বেশকিছু নিম্ন বাজেটের ছবি চড়া দামে কিনেছিলেন গৌতম কুন্ডু।

ইডির তরফ থেকে বুধবার সকালে চিঠি পাঠিয়ে তলব করা হয় ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তকে। ধারণা করা হচ্ছে রোজভ্যালি ও ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তের মধ্যে কোন টাকার লেনদেন হয়েছিল কিনা তা জানতেই তাকে তলব করা হয়েছে। যদিও অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত এ বিষয়ে মুখ খোলেননি।

অন্যদিকে অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় কে আগামী ১৯শে জুলাই ফের ইডির অফিসে হাজিরা দিতে বলা হয়েছে। প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় অভিনীত ‘হ্যাংওভার’ ও ‘মনের মানুষ’ এর মতো ছবি রোজভ্যালির প্রোডাকশনে তৈরি হয়েছিল। এই প্রসঙ্গে অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ” চিঠি তো আমাকে দেওয়া হয়নি। আমার কোম্পানিকে দেয়া হয়েছে। আমি একজন দায়িত্বশীল নাগরিক। আমি ভারতবর্ষের সংবিধান কে সম্মান দিই। যেটুকু আমার করার দরকার, যেটা করলে নতুন ভারত তৈরি হবে, সেটা নিশ্চয়ই করব। এটাতো আমাদের ভারতবর্ষের নিয়মের বাইরে নয়। সেখানে তারা যদি কোনও সহযোগিতা চান,১০০ শতাংশ সহযোগিতা করব। কারণ সহযোগিতা না করার মত কিছু নেই।”

পর্যবেক্ষকরা বলছেন রোজভ্যালি কাণ্ডে ইডির নজর এবার টলিউডের উপর পড়েছে। প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় ও ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত এর পর আর কার কার নাম জড়ায় তা এখন দেখার বিষয়।

Back to top button
Close