টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গভারতরাজনীতি

বাংলার দুই যুবকের নামে হবে অযোধ্যায় সড়কের নামকরণ, বড় ঘোষণা যোগী সরকারের

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ উত্তরপ্রদেশের অযোধ্যায় (ayodhya) একটি রাস্তার নামকরণ করা হবে কোঠারি ভাইদের নামে- এমনটা ঘোষণা করেছেন যোগী আদিত্যনাথ সরকারের উপ-মুখ্যমন্ত্রী কেশব প্রসাদ মৌর্য। অযোধ্যায় রাম মন্দির (ram temple) নির্মানের লড়াইয়ে সেদিন পুলিশের গুলিতে প্রাণ হারানো এই দুই বঙ্গ সন্তানকে শ্রদ্ধার্ঘ্য দিতেই এই রাস্তার নামকরণ করার ঘোষণা করল উত্তরপ্রদেশ সরকার।

বাংলায় বর্তমানে নির্বাচনের মরশুম চলছে। এই পরিস্থিতিতে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বিজেপির শীর্ষ স্থানীয় নেতৃত্বরা বাংলায় আসছেন, গেরুয়া ঝড় তুলতে। সেরকমই বাংলায় বিজেপির এক কর্মসূচীতে নিমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল কোঠারি যুবকদের পরিবারের সদস্যদের। আমন্ত্রণ পেয়ে সেখানে উপস্থিত হয়েছিলেন কোঠারি ভাইদের বোন পূর্ণিমা কোঠারি।

মঞ্চে উঠে তিনি কাঁদতে কাঁদতে তাঁর ভাইদের আত্মত্যাগের কথা স্মরণ করেন। সেইসঙ্গে অযোধ্যা নগরীতে রাম মন্দির নির্মানের সমস্ত রকম ব্যবস্থা করার জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ধন্যবাদ জানান। পাশাপাশি বাংলার মানুষকে কোঠারি ভাইদের আত্মত্যাগের কথা স্মরণ করিয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।

বড়বাজারের বাসিন্দা রাম ও শরদ কোঠারি, মাত্র ২০-২২ বছরের দুই যুবক ১৯৯০ সালে রাম মন্দিরের আন্দোলনে সামিল হয়েছিলেন। তাদের সেদিনের সেই আত্মত্যাগকে স্মরণে রাখতে অযোধ্যায় একটি স্মৃতিসৌধ নির্মাণ করা হয়েছে। তাদের সেই আন্দোলনের ফলেই, আজকের দিনে প্রধানমন্ত্রী রাম মন্দির নির্মানের স্বপ্নকে সত্য করতে পেরেছে।

সেদিন এই দুই কোঠারি ভাই শুধুমাত্র রাম মন্দিরের আন্দোলনে সামিল হতে তাদের বাড়ি ছেড়ে, এমনকি বোনের বিয়ের অনুষ্ঠান ছেড়ে বেরিয়ে পড়েছিলেন। তৎকালীন বিজেপি নেতা লালকৃষ্ণ আডবানির নেতৃত্বে আন্দোলনে সামিল হয়ে পরবর্তীতে কর সেবকদের দলের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন তাঁরা। এই আন্দোলন চলাকালীন পুলিশের ছোঁড়া গুলিতে তাঁরা প্রাণ হারান।

Back to top button