টাইমলাইনবিনোদন

বাবা চলে যাওয়ার পর একাই সামলাচ্ছেন মাকে, মায়ের জন্মদিনে কেক কেটে সেলিব্রেশন পর্দার ‘দীপু’ রোহনের

বাংলাহান্ট ডেস্ক: মাস কয়েক আগেই পরিবারে ঘটে গিয়েছে বড়সড় অঘটন। বাবাকে হারিয়েছেন ‘অপরাজিতা অপু’ খ‍্যাত অভিনেতা রোহন ভট্টাচার্য (rohaan bhattacharjee)। পিতৃহারা হওয়ার শোক সামলেও ফিরেছিলেন কাজে। জীবন যে থেমে থাকে না। বাবা চলে যাওয়ার পর থেকে মাকেও সামলেছেন রোহন। আর এদিন মায়ের জন্মদিনে তাঁকে আদরে ভালবাসায় ভরিয়ে দিলেন ছেলে রোহন।

মায়ের জন্মদিন উপলক্ষে বাড়িতেই ছোটখাট সেলিব্রেশনের আয়োজন করেছিলেন পর্দার ‘দীপু’। মায়ের জন‍্য এনেছিলেন সুন্দর একটি কেক। পরিবারের অন‍্যান‍্য সদস‍্যদের সঙ্গে সেই কেকটি কেটেই জন্মদিন পালন করেন রোহন। এদিনের কয়েকটি ছবি শেয়ার করে অভিনেতা লিখেছেন, ‘শুভ জন্মদিন মা। তোমাকে অনেক ভালবাসি। ধন‍্যবাদ মা।’


সিরিয়ালে দীপুর মায়ের প্রতি ভালবাসা ও সম্মান প্রশংসনীয়। মা এবং স্ত্রী কাউকেই অসম্মান না করে যে দুজনেরই মন রেখে চলা যায় পদে পদে সেটাই প্রমাণ করে দীপু। বাস্তবেও একই রকম মাতৃভক্ত রোহন। তাঁর শেয়ার করা ছবিগুলিতেও সেটাই স্পষ্ট হয়ে উঠেছে। বাবারও খুব কাছের ছিলেন রোহন। হঠাৎ করেই তাঁর চলে যাওয়াটা মেনে নিতে পারেননি অভিনেতা।

খারাপ খবরটা শেয়ার করে সোশ‍্যাল মিডিয়ায় রোহন লিখেছিলেন, ‘আবার দেখা হবে বাপি, ততদিন খুব ভালো থাকো। আমাদের চিন্তা একদম করবে না, আমি সব সামলে নেবো, মা কে খুব ভালো রাখবো, আমিও ভালো থাকবো । আমি শুনেছি একটা খুব সুন্দর ঘিয়ে রঙের জায়গা আছে, খুব সুন্দর, তুমি যেমন পছন্দ করো, ওখানে তুমি থাকবে। আমাদের যখন আবার দেখা হবে, আমি তোমাকে অনেক গান শোনাবো, মোহাম্মদ রফির আহেসান তেরা হোগা মুঝপার। তোমার প্রিয় গান, অনেক গল্প শোনাবো, তোমার কাছ থেকে অনেক গল্প শুনবো। তোমার কাছে সারা রাত বসে গল্প শুনবো, যেমন শুনতাম।’

তবে মন খারাপ কাটিয়ে দ্রুত কাজেও ফিরেছিলেন রোহন। অপরাজিতা অপুতে নায়কের ভূমিকায় রয়েছেন তিনি। কাজের চাপ তো রয়েছেই। সম্প্রতি ডান্স বাংলা ডান্সে এসেও রোহন জানিয়েছিলেন, তাঁর বাবা চাইতেন ব‍্যক্তিগত জীবনে কোনো সমস‍্যা হলেও কাজটাকে যেন আগে গুরুত্ব দেন রোহন। বাবার কথাই রেখেছিলেন অভিনেতা। ভবিষ‍্যতে আরো উন্নতি করুন তিনি, এমনটাই কামনা অনুরাগীদের।

Related Articles

Back to top button