টাইমলাইনখেলাক্রিকেট

রোহিত শর্মার জন্য টেস্ট ক্রিকেটে সফলতা পাওয়া একেবারেই সহজ হয়নি, মন্তব্য দীনেশ কার্তিকের

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক: রোহিত শর্মার টেস্ট অভিষেক হয়েছিল ২০১৩ সালে। তিনি যখন বৃহত্তম ফরম্যাটে নিজের অভিষেক করেছিলেন তখন দুই খেলার বাকি দুই ফরম্যাটে দলের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গে পরিণত হয়েছিলেন। ওই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে ইডেন গার্ডেন্সে রোহিতের ডেভিউ টেস্টটি ছিল সচিন টেন্ডুলকারের শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ। ওই ম্যাচে ১৭৭ রানের অসাধারণ ইনিংস খেলেছিলেন তিনি। তার পরের ম্যাচে নিজের ঘরের মাঠ ওয়াংখেড়েতে ফের শতরান করেছিলেন তিনি। কিন্তু তারপরেও তার টেস্ট কেরিয়ার গতি পেতে আরও অনেক সময় লাগিয়েছে।

ওই ম্যাচের পর সবাই আশা করেছিলেন যে রোহিত এই ফরম্যাটে ধারাবাহিক হয়ে উঠবেন কিন্তু বাস্তবে সেটা হতে আরও বেশ কিছুটা দেরি হয় কারণ ছিল তার টেম্পরামেন্টের অভাব। যদিও বর্তমান ভারত অধিনায়ক সেই সময় তার ওডিআই ফরম্যাটে মোট তিনটি দ্বিশতরান করে ইতিহাস তৈরি করেছিলেন। কিন্তু টেস্ট ক্রিকেটে বার বার গতিরুদ্ধ হচ্ছিল তার। এই নিয়ে ভারতের অভিজ্ঞ উইকেটরক্ষক এবং তার সতীর্থ দীনেশ কার্তিক সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে মুখ খুলেছেন।

কার্তিক বলেছেন ‘আমি মনে করি না যে ভারতের টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে রোহিতের মতো সফল বেশি ক্রিকেটার আছেন। তার প্রথম দুই ম্যাচে সে শতরান করেছিল এবং তারপরে সবাই ভেবেছিল যে সচিনের অবসরের পর তিনি সচিনের জায়গা নেবেন। কিন্তু আমাদের জীবন নিজের নিয়মে চলে। সবসময় আপনি যা ভাবেন ঠিক তেমনটি হয় না। তাই বলে এটাও বলা যায় না রোহিত টেস্টে ব্যর্থ। ”

কার্তিক আরও বলেছেন যে তিনি দেখেছিলেন কিভাবে রোহিত সমালোচনা হওয়ার পরেও তার টেস্ট খেলোয়াড় হওয়ার ক্ষমতার আছে, সেই ধারণা থেকে বিশ্বাস হারাননি। হ্যাঁ, হয়তো রোহিত মাঝে মাঝে কিছু বেপরোয়া শট খেলে ফেলেন যা হয়ত দীর্ঘতম ফরম্যাটের গ্রহণযোগ্য নয় কিন্তু তাও দীনেশ কার্তিক মনে করেন রোহিত শর্মা সীমিত ওভারের ক্রিকেটে রাজ করার জন্যে জন্মেছে যার জন্য বেশকিছু সময় তার দীর্ঘতম ফরম্যাটেও সেই খেলার প্রভাব চোখে পড়ে যায়। তা সত্ত্বেও রোহিত শর্মা যে টেস্ট কেরিয়ার অর্জন করেছেন তা সকলের পক্ষে সম্ভব নয় বলেও কার্তিক মন্তব্য করেছেন।

Related Articles