টাইমলাইনবিনোদন

বিপদমুক্ত ছোট্ট সহদেব, উন্নত চিকিৎসার জন‍্য রায়পুরে নিয়ে যাওয়া হবে ‘বচপন কা পেয়ার’ গায়ককে

বাংলাহান্ট ডেস্ক: অবশেষে স্বস্তির খবর। বিপদমুক্ত ‘বচপন কা পেয়ার’ খ‍্যাত সহদেব ডিরডো (sahdev dirdo)। স্বাস্থ‍্যের উন্নতি হয়েছে তাঁর। গত পরশু খবর মিলেছিল, পথদুর্ঘটনার শিকার হয়েছে বছর দশের সহদেব। বাবার সঙ্গে বাইকে করে যাওয়ার সময় পড়ে গিয়ে মাথায় গুরুতর চোট পেয়েছে সে। জগদলপুরের ডিমরাপাল হাসপাতালে ভর্তি করা হলে তার চিকিৎসা শুরু হয়।

সেখানেই সিটি স্ক‍্যান করা হয় ছোট্ট সহদেবের। ১২ ঘন্টা চিকিৎসকের পর্যবেক্ষণে থাকার পর এখন অনেকটাই সুস্থ সে। ফিরেছে জ্ঞান, কথাও বলতে পারছে সে। আপাতত তাঁর জীবনের ঝুঁকি আর না থাকলেও সহদেবের পরিবারের সদস‍্যদের মত, আরো ভাল চিকিৎসার জন‍্য তাকে রায়পুরে নিয়ে যাওয়া হবে।


হাসপাতাল সূত্রে খবর, সহদেবের সিটি স্ক‍্যান রিপোর্টে চিন্তার কোনো কারণ নেই। কিন্তু ডিমরাপাল হাসপাতালে কোনো নিউরোসার্জন না থাকায় সহদেবের পরিবারের সদস‍্যরা তাকে রায়পুরে নিয়ে যাওয়া মনস্থ করেছে। সেখানে ফের একবার সিটি স্ক‍্যান করা হবে তার।

মঙ্গলবার একটি মোটর বাইক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয় বছর দশের সহদেব। ছত্তিশগড়ের সুকমা জেলায় ঘটেছে এই ঘটনা। বাবার সঙ্গে বাইকে চেপে নিজের গ্রামের দিকে যাচ্ছিল সহদেব। তখনি আচমকা বাইক থেকে পড়ে যায় সে। মাথায় তার গুরুতর চোট লাগে।

সঙ্গে সঙ্গে তাকে সুকমা জেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। প্রাথমিক চিকিৎসার পর জগদলপুর মেডিক‍্যাল কলেজে ভর্তি করা হয় সহদেবকে। মঙ্গলবার রাতে টুইটারে বাদশা লেখেন, ‘সহদেবের পরিবার ও বন্ধুদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি। এখনো অজ্ঞান অবস্থায় রয়েছে সে, হাসপাতালের দিকে যাচ্ছে। আমি ওর পাশেই আছি। সবাই প্রার্থনা করুন।’

মাত্র কয়েক লাইনের গান গেয়ে সহদেব সোশ‍্যাল মিডিয়া তারকা হয়ে গিয়েছিল। মানুষের মুখে মুখে ঘুরেছে তার গান। কিশোর ইতিমধ‍্যেই ছত্তিশগড়ের মুখ‍্যমন্ত্রীর থেকে সংবর্ধনা পেয়ে গিয়েছে। জনপ্রিয় র‍্যাপার বাদশার সঙ্গেও গান গেয়ে ফেলেছে সহদেব।

Related Articles

Back to top button