টাইমলাইনবিনোদন

চুম্বন নয় অন্য কোন কারণে সঞ্জয় লীলা বানসালির ইনশাল্লাহ ছাড়লেন সালমান

বাংলা হান্ট ডেস্ক: সঞ্জয় লীলা বানসালির ‘ইনশাল্লাহ’ থেকে সালমান খানের বেরিয়ে যাওয়া নিয়ে নানা ধরনের গুঞ্জন উঠছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। তার একটি কারণ হলো- আলিয়া ভাটের সঙ্গে চুম্বন দৃশ্যে অভিনয় করতে চাননি ভাইজান।

সূত্রে জানা যায়, ছবিটির চিত্রনাট্যে চুম্বনের কোনো দৃশ্য নেই। বরং এই গুঞ্জনে হেসে ওঠে সঞ্জয় জানায়, “প্রথম কথা হলো এই সিনেমায় কখনো চুমুর দৃশ্য ছিল না। সালমানও সে কথা জানতেন। বলিউডের সবাই জানেন সালমান কখনো চুমুর দৃশ্যে অভিনয় করেন না। এমনকি নায়িকাদের সঙ্গে খুব বেশি ঘনিষ্ঠ হন না পর্দায়। সব পরিচালকই জানেন, পর্দায় চুমুর দৃশ্যে সালমান অভিনয় করেন না। এটাও বলা হচ্ছে- চিত্রনাট্যের প্রয়োজনে সঞ্জয়ের ‘ব্ল্যাক’ সিনেমায় রানি মুখার্জিকে চুমু দিতে পারেন অমিতাভ বচ্চন, তবে গল্পের খাতিরে সালমান কেন রাজি হবেন না? যাই হোক, ‘ইনশাল্লাহ’য় কোনো চুমুর ‍দৃশ্য নেই। এটা অন্ধকারে ঢিল ছোড়া মাত্র”। তবে সূত্রটি সালমান-সঞ্জয়ের বিরোধের বিষয়টি খোলাসা করেনি।

গত বছর মুক্তি পাওয়া সালমানের ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’ ছবিতে ক্যাটরিনা কাইফের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতার প্রয়োজন ছিল। পরিচালক আলী আব্বাস জাফর অনেক চেষ্টা করেও সালমানকে রাজি করাতে পারেননি।

শুধু নায়িকাদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা নয়, ধূসর ও নেতিবাচক চরিত্রে সালমানের আপত্তি রয়েছে। এ জন্যই ‘বাজিগর’-এর প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন, যেখানে নৈতিক বিচ্যুতি চিত্রায়িত হয়েছে। পরে সেই ছবিটিই রাতারাতি তারকা বানিয়ে দেয় শাহরুখ খানকে।

বরাবরই সালমান বলেন, “পরিবারের সবাই মিলে দেখার মতো ছবিতে কাজ করতে চাই আমি। অস্বস্তির কারণ হতে চাই না”।

Back to top button