টাইমলাইনবিনোদনরাজনীতি

প্রতিশ্রুতি দিলেও সরকারি সুযোগ সুবিধা কিছুই পাননি, কেষ্টর গড়ে গিয়ে ফাঁসলেন খোদ সাংসদ শতাব্দী

বাংলাহান্ট ডেস্ক: আসন্ন পঞ্চায়েত ভোটের (Panchayat Poll) উত্তাপে বাংলায় শীতের আগমন থমকে গিয়েছে। জেলাস্তরে কর্মীদের মধ‍্যে উৎসাহ বাড়াতে শীর্ষ স্থানীয় নেতা সাংসদরা সভা করছেন গ্রাম বাংলায়। কিছুদিন আগেই পাঁচদিনের বাংলা সফরে এসে একাধিক জেলায় সভা করে গিয়েছেন বিজেপির মিঠুন চক্রবর্তী। সফর শেষ করেছেন কেষ্টর গড় বীরভূম দিয়ে। তারপরেই পালটা সভা করেছে তৃণমূল। এবার ফের সেখানে গেলেন সাংসদ শতাব্দী রায় (Satabdi Roy)।

শনিবার জনসংযোগ কর্মসূচীতে সাঁইথিয়ার হাতোড়া গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত হাতোড়া গ্রামে পৌঁছেছিলেন বীরভূমের তৃণমূল সাংসদ শতাব্দী রায়। অনুব্রত মণ্ডল গ্রেফতার হওয়ার পর থেকেই অশান্ত হয়ে রয়েছে বীরভূম। এদিন সাংসদকে সামনে পেয়ে কার্যত ফেটে পড়েন বাসিন্দারা। অভিযোগের ঝুলি নিয়ে সাংসদের বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন তারা।


প্রতিশ্রুতি মতো সরকারি সুযোগ সুবিধা পাননি বলে অভিযোগ জানান স্থানীয় বাসিন্দারা। শতাব্দী জিজ্ঞাসা করেন, কেউ কি বাড়ি পানি? সঙ্গে সঙ্গে ক্ষুব্ধ জনতা সমবেত ভাবে উত্তর দেয়, ‘না’। শতাব্দী বলেন, বীরভূমে অনেকেই বাড়ি পেয়েছেন। যারা পাওয়ার যোগ‍্য তারা ধীরে ধীরে ঠিক পাবেন।

কিন্তু বাসিন্দাদের ক্ষোভ তাতে স্তিমিত হয়নি। বরং একের প‍র এক অভিযোগ আনতে থাকেন তারা। কেউ বাড়ি পাননি, কোথাও প্রতিশ্রুতি মতো রাস্তা তৈরি হয়নি, আবার কোনো পুকুরের ঘাট বাঁধানো হয়নি, অভিযোগ অনেক। সবার অভিযোগই মন দিয়ে শোনেন শতাব্দী। আশ্বাস দেন সবাই সুযোগ সুবিধা পাবেন।

যদিও সংবাদ মাধ‍্যমের সামনে অন‍্য সুর শোনা যায় শতাব্দীর কণ্ঠে। তিনি দাবি করেন, বেশিরভাগ মানুষই সুবিধা পেয়েছেন, ভাল কথা বলেছেন। সংবাদ মাধ‍্যম শুধু খারাপটাই প্রচার করছে। যারা পরিষেবা পাননি তাদের জন‍্য দুয়ারে সরকার কর্মসূচী রয়েছে।

Related Articles