টাইমলাইনবিনোদনরাজনীতি

‘সম্মান রেখেই বলছি, মদনদা কিন্তু বাংলার ক্রাশও’, প্রকাশ‍্যেই বললেন সায়নী ঘোষ

বাংলাহান্ট ডেস্ক: অভিনেত্রী সায়নী ঘোষের (sayani ghosh) কণ্ঠে এবার তৃণমূল (tmc) বন্দনা। মুখ‍্যমন্ত্রী মমতা বন্দ‍্যোপাধ‍্যায়ের (mamata banerjee) প্রশংসায় এদিন পঞ্চমুখ হলেন অভিনেত্রী। পাশাপাশি রাজ‍্যের প্রাক্তন মন্ত্রী মদন মিত্রকে (madan mitra) ‘বাংলার ক্রাশ’ বলেও অভিহিত করেন সায়নী।

এই মুহূর্তে অন‍্যতম ‘প্রতিবাদী কণ্ঠ’ সায়নী, ভবানীপুরের এক অরাজনৈতিক অনুষ্ঠানের মঞ্চে দাঁড়িয়ে অভিনেত্রীর জন‍্য এমনি প্রশংসা শোনা গেল মদন মিত্রর মুখে। তিনি আরো বলেন, “আমার আসার কথা ছিল পাঁচটায়, কিন্তু এসেছি তিনটেয়। তার কারণ একটাই। সায়নী তুমি এগিয়ে চলো, গোটা সরকার গোটা বাংলা তোমার পাশে আছে।”


এরপরেই প্রাক্তন মন্ত্রীর প্রশংসার উত্তর দেন সায়নী। তিনি বলেন, “মদনদা অনেক বড় লিডার। সম্মান রেখেই বলছি, মদনদা কিন্তু বাংলার ক্রাশও। এমন সুন্দর আদান প্রদান পশ্চিমবঙ্গ ছাড়া আর কোথাও সম্ভব নয়।” তিনি আরো বলেন, পশ্চিমবঙ্গে নারীদের যে সম্মান দেওয়া হয় তা আর কোথাও নেই। কর্মক্ষেত্রেও তার প্রতিফলন পেয়েছেন তিনি।

এর আগে সায়নীর হয়ে সুর চড়াতে দেখা গিয়েছিল মুখ‍্যমন্ত্রী মমতা বন্দ‍্যোপাধ‍্যায়কে। পুরুলিয়ার জেলা কংগ্রসের জনসভায় নাম না করে বিজেপি নেতা তথাগত রায়ের উদ্দেশে কটাক্ষ করেন মমতা বন্দ‍্যোপাধ‍্যায়। তিনি বলেন, “সায়নী নামে একটা মেয়ে ছবিতে কাজ করে। তাঁকে ধমকানো চমকানো হচ্ছে। তুমি উত্তর প্রদেশে ধমকাও, দিল্লিতে ধমকাও, বিহারে ধমকাও, বাংলায় ধমকানোর আশা কিকরে রাখো? ক্ষমতা থাকলে সায়নীর গায়ে হাত দিয়ে দেখাও।”

এদিন মুখ‍্যমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে সায়নী বলেন, “মহিলা মুখ‍্যমন্ত্রী থাকার সুবিধা রয়েছে। নারী নিরাপত্তায় পশ্চিমবঙ্গ নাম্বার ওয়ান। গোটা দেশে এখন কি চলছে তা আমরা জানি। রাত দুটোয় কাজ করে বাড়ি ফিরব তা পশ্চিমবঙ্গ ছাড়া আর কোথাও ভাবাই যায় না।”

Back to top button