টাইমলাইনবিনোদন

অন্তর্বাসের সাইজ কত? বেয়াড়া প্রশ্নের সপাটে জবাব দিলেন সায়ন্তনী ঘোষ

বাংলাহান্ট ডেস্ক: সোশ‍্যাল মিডিয়ার (social media) সঙ্গে মানুষ যত বেশি ওতপ্রোত ভাবে জড়িয়ে পড়ছে ততই এক প্রকার ভাবে তৈরি হচ্ছে অন‍্যদের নীচু দেখানোর প্রবণতা, কুমন্তব‍্য করে অস্বস্তিতে ফেলার প্রবণতা। নেটজগতে বিচরণকারী মানুষদের মধ‍্যে একাংশের মধ‍্যে এই প্রবণতাটা ব‍্যাপক ভাবে মাথাচাড়া দিয়ে উঠছে। নিত‍্যদিনই কিছু মানুষকে নিশানা বানিয়ে ট্রোল করা হচ্ছে।

কিছু কিছু সময় এই ট্রোলিংয়ে অত‍্যন্ত নিম্ন রুচিরও পরিচয় দিচ্ছে কিছু মানুষ। উপরন্তু সোশ‍্যাল মিডিয়ায় পরিচয় গোপন করার সুযোগ থাকায় অনায়াসেই কুমন্তব‍্য, অশালীন প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়ে পার।পেয়ে যাচ্ছে কিছু মানুষ। বিশেষত তারকাদের প্রায়দিনই এমন পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে হয়।


তবে সকলেই যে মুখ বুজে এই ধরনের অভব‍্য আচরণ মেনে নেন এমনটা কিন্তু নয়‌। সাহস দেখিয়ে পাল্টা আক্রমণ শানাতেও দেখা যায় কিছু তারকাকে। এমনি একজন হলেন বাঙালি অভিনেত্রী সায়ন্তনী ঘোষ (sayantani ghosh)। সম্প্রতি অনুরাগীদের সঙ্গে যোগাযোগ বাড়াতে সোশ‍্যাল মিডিয়াতেই একটি কথোপকথনের পর্ব শুরু করেছিলেন সায়ন্তনী।

সেখানেই এক ব‍্যক্তি একটি বেয়াড়া প্রশ্ন করে বসেন অভিনেত্রীকে। ওই ব‍্যক্তি জিজ্ঞাসা করেন, সায়ন্তনীর ব্রায়ের সাইজ কত। এমন প্রশ্ন দেখে রীতিমতো ক্ষিপ্ত হয়ে যান সায়ন্তনী। পালটা ওই ব‍্যক্তিকে তিনি উত্তর দেন, ‘আগে আমাকে আপনার বুদ্ধিমত্তার পরিমাপ বলুন। আমার তো মনে হয় সেটা শূন‍্যও হবে না’।


এখানেই থামেননি সায়ন্তনী। নিজের ইনস্টা হ‍্যান্ডেলে একটি লম্বা পোস্টের মাধ‍্যমে ‘বডি শেমিং’এর মতো বিষয় নিয়ে নিজের মতামত ব‍্যক্ত করেছেন তিনি। অভিনেত্রী লিখেছেন, ‘যেকোনো ধরনের বডি শেমিংই খারাপ। কিন্তু আমি এটা বুঝে উঠতে পারিনা মহিলাদের স্তন নিয়ে সবার এত কৌতূহল কেন? বিশেষ করে সাইজ নিয়ে। আর এটা শুধু পুরুষরাই করে না, মহিলারাও এমন করেন। কেউ এটাকে অন‍্যান‍্য অঙ্গ প্রত‍্যঙ্গের মধ‍্যে কেন গণ‍্য করে না।’

সায়ন্তনী আরো লেখেন, ‘যে মায়েরা সন্তানকে স্তন‍্যপান করান তাদের ক্ষেত্রে অবশ‍্যই এটা একটা বিশেষ ভূমিকা পালন করে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত এটা শুধুমাত্র দেহের একটা অংশ। আমাদের মধ‍্যে আবার অনেকে মনে মনে চান তাদের যদি স্তনই না থাকতো আবার অনেকে চান ইমপ্লান্ট করাতে।’

অভিনেত্রী আরো প্রশ্ন করেছেন, পুরুষদের অধিকার কে দিয়েছে মহিলাদের এমন প্রশ্ন করার বা এমন নজরে তাদের দেখার। হয়তো মহিলারাই তাদের এমনটা করার অধিকার দিয়েছেন তবে এবার এসব বন্ধ হওয়া উচিত বলে মন্তব‍্য করেন সায়ন্তনী। তাঁর এই উত্তর ও পোস্ট বেশ ভাইরাল হয়েছে সোশ‍্যাল মিডিয়ায়। সপাটে জবাবের জন‍্য সায়ন্তনীর প্রশংসা করেছেন নেটিজেনরা।

Back to top button