টাইমলাইনভারত

ফের বন্ধের পথে স্কুল, জিম, সিনেমা হল! উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক ডাকলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ রাজধানী দিল্লীতে (delhi) করোনার ক্রমবর্ধমান বৃদ্ধির পরিপ্রেক্ষিতে গ্রেডেড রেসপন্স অ্যাকশন প্ল্যান (GRAP) কার্যকর হরা হতে পারে। এই বিষয়ে মঙ্গলবার বেলা ১২ টায় এক উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক ডেকেছেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল (Arvind Kejriwal)। সেই বৈঠকে করোনার বৃদ্ধি নিয়ে আলোচনার পর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

যদি দিল্লীতে GRAP চালু করা হয়, তাহলে স্কুল, সিনেমা হল এবং জিম বন্ধ থাকতে পারে। অ্যাড ইভেন সিস্টেম চালু করা যেতে পারে শপিং কমপ্লেক্স এবং মলগুলোতে।

Two patients with Omicron were found in Karnataka

বর্তমান সময়ে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন (omicron) আতঙ্ক ছড়িয়েছে সর্বত্রই। দিল্লীতে ওমিক্রন আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৬৫ জন। মহারাষ্ট্রে আক্রান্তের সংখ্যা ১৬৭ জন। ওমিক্রন আক্রান্তের হদিশ পাওয়া গিয়েছে কলকাতাতেও। এই পরিস্থিতিতে দেশে করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের আতঙ্ক বিরাজ করছে। সোমবার থেকে রাত ১১ টা থেকে ভোর ৫ টা পর্যন্ত নাইট কারফিউ জারি করার পরিকল্পনা করেছে দিল্লী সরকার।

বিশেষজ্ঞদের মতে, যদি পরপর দুই দিন করোনা সংক্রমণের হার ০.৫৫ শতাংশ বেড়ে যায়, তাহলে GRAP-র অধীনে রাত ১১ টা থেকে ভোর ৫ টা পর্যন্ত নাইট কারফিউ জারি করা হতে পারে।

যদি সংক্রমণের মাত্রা দ্রুত হারে বেড়ে যায়, তাহলে নতুন করে কঠোর নিয়ম প্রযোজ্য হবে। লেভেল-1 হবে লেভেল-2, লেভেল-3 এবং লেভেল-4, এই চারটি স্তরে অত্যাবশ্যকীয় পণ্যের দোকান খোলা বন্ধ করা হবে।

ইয়েলো, অ্যাম্বার এবং অরেঞ্জ অ্যালার্ট জারি হলে, দিল্লী সরকার এবং স্থানীয় সংস্থাগুলির অফিস খোলা থাকবে। তখন কর্মক্ষেত্রে গ্রুপ-এ কর্মকর্তাদের উপস্থিতি থাকবে ১০০ শতাংশ এবং বাকি কর্মীদের ৫০ শতাংশ উপস্থিতি করা হবে। তবে রেড অ্যালার্ট জারি হলে, খোলা থাকবে শুধুমাত্র অত্যাবশ্যকীয় পণ্য, হাসপাতাল এবং থানা।

Related Articles

Back to top button