টাইমলাইনভারত

৩০ নভেম্বর পর্যন্ত বন্ধ থাকবে স্কুল! জেনে নিন কি বলল কেন্দ্র

সম্প্রতি নেটপাড়ায় স্কুল (school) বন্ধ সংক্রান্ত  একটি নোটিশ ভাইরাল হয়েছে। এই নোটিশে বলা হয়েছে আগামী ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত বন্ধ থাকবে দেশের সমস্ত স্কুল। নোটিশে আরো বলা হয়েছে দুর্যোগ মোকবিলা আইন, ২০০৫ এর ধারা ১০ (২) (১) এর অধীনে এই নির্দেশ জারি করা হয়েছে। আসুন জেনে নি এই সম্পর্কে কি বলছে প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরো।

প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরো জানিয়ে দিয়েছে এই নোটিশটি সম্পূর্ণ রূপে ভুয়ো৷ সেপ্টেম্বর মাসে যে স্কুল খোলার অনুমতি দিয়েছে সরকার তা ২০২০ সালের নভেম্বর পর্যন্ত বৈধ।

নভেম্বরে আনলক ৬ এর ঘোষণা করার কথা থাকলেও আপাতত তা স্থগিত রাখা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। নভেম্বর এর শেষ পর্যন্ত আনলক ৫ এর সমস্ত নির্দেশ জারি থাকবে বলে জানানো হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে।

প্রসঙ্গত, নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়াদের স্বার্থে ২১ সেপ্টেম্বর থেকে স্কুল খোলার কথা বলেছিল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রক। একই সাথে স্কুলে সামাজিক দূরত্ব বিধি মেনে চলার জন্য একাধিক নতুন নিয়ম জারি করা হয়েছে। জেনে নিন এই নতুন নিয়মগুলি

 

১. প্রতিটি স্কুলের প্রধান ফটকে বাধ্যতামূলক ভাবে রাখতে হবে থার্মাল গান। শিক্ষক, শিক্ষাকর্মী ও ছাত্রছাত্রীদের শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করে তবেই বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে প্রবেশ করতে দেওয়া যাবে

২. প্রত্যেকের মাস্ক বা কাপড়ের আচ্ছাদন ব্যাবহার করতেই হবে।

৩.স্কুল খোলার পূর্বে ক্লাসরুম, গ্রন্থাগার, ল্যাবরেটরি সহ পুরো স্কুল স্যানিটাইজ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

৪.যে সব স্কুলে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার হয়েছিল সেগুলি অবশ্যই ভালোভাবে পরিস্কার করতে হবে।

৫. বিদ্যালয়ের হাজিরা কখনোই ৫০ শতাংশের বেশি হবে না। অনলাইন পঠন-পাঠনও চালু থাকবে।

৬. যে সব পড়ুয়া স্কুলে আসতে ইচ্ছুক তাদের অবশ্যই অভিভাবকদের সই সহ অনুমতি পত্র নিয়ে আসতে হবে

৭. স্কুলের মেস বা ক্যান্টিন বন্ধ থাকবে। কোনো রকম খেলাধুলা বা দলবদ্ধ সংস্কৃতির চর্চায় নিষেধ করা হয়েছে।

৮. যে সব জায়গায় বারবার স্পর্শ হয় ( সিঁড়ির রেলিং, বেঞ্চ, চেয়ার, টেবিল, ডেস্ক, শৌচাগারে জলের কল ইত্যাদি ) তা অবশ্যই নিয়মিত স্যানিটাইজ করতে হবে।

৯. স্কুলে ব্যাবহৃত কম্পিউটার, ল্যাপটপ, প্রিন্টারগুলিকেও নিয়মিত ৭০% অ্যালকোহল যুক্ত মিশ্রণ দিয়ে পরিস্কার করতে হবে।

১০. শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অন্যান্যদের ব্যাবহৃত মাস্ক, টিস্যু ফেলার জন্য আলাদা বিন রাখতে হবে। সেগুলিকে স্থূল বর্জ্য হিসাবে নষ্ট করে ফেলতে হবে

১১. স্কুল পরিস্কারে পড়ুয়াদের ব্যাবহার করা যাবে না।

১২. মানসিক অবসাদ দেখা দিলে পড়ুয়া ও শিক্ষকদের কাউন্সেলিং করাতে হবে।

১৩. পড়ুয়াদের ব্যাবহার করা স্কুলের যান-বাহন নিয়মিত পরিস্কার ও স্যানিটাইজ করতে হবে

১৪. স্কুল চলাকালীন কারো কোভিড উপসর্গ দেখা দিলে সাথে সাথে ব্যাবস্থা নিতে হবে।

 

 

 

 

Back to top button