টাইমলাইনভারতখেলাআন্তর্জাতিকক্রিকেট

ভারত পাকিস্তান বিশ্বকাপ নিয়ে পাকিস্তান মুখ খুলতেই, মুখের ওপর জবাব দিলেন সেওয়াগ

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মহাযুদ্ধ ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে। তবে বাছাই পর্বের খেলা শুরু হলেও ভারতের সফর এখনও শুরু হয়নি। ২৪ অক্টোবর চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের সঙ্গে মহা মোকাবিলা রয়েছে ভারতের। সেই লড়াই দিয়েই শুরু হবে দুই দেশের বিশ্বকাপ সফর। তার আগে স্বাভাবিকভাবেই এখন উত্তেজনা তুঙ্গে দুই দেশের সমর্থকদের মধ্যে। কারণ দু বছর বাদে ফের একবার মুখোমুখি হতে চলেছে ভারত পাকিস্তান। ইতিমধ্যেই এই ম্যাচ নিয়ে বয়ান দিতে শুরু করেছেন দুই দেশের প্রাক্তন খেলোয়াড়রা। এবার এই তালিকায় যুক্ত হল প্রাক্তন ভারতীয় বিস্ফোরক ওপেনার বীরেন্দ্র সেওয়াগের নাম।

এবিপি নিউজের একটি অনুষ্ঠানে কথা বলতে গিয়ে এই ম্যাচ সম্পর্কে নিজের মতামত রেখেছেন এই প্রাক্তন ওপেনার। এখনও পর্যন্ত বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে একটি ম্যাচে হারেনি ভারত। এর কারণ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে বীরু বলেন, “আমার মতে, যখন আমরা সেই মনোভাব নিয়ে খেলি, আমরা কখনই বড় বিবৃতি দিই না। পাকিস্তানের পক্ষ থেকে সবসময় কিছু না কিছু বড় বিবৃতি আসে, যেমন তিনি [পাকিস্তানি নিউজ অ্যাঙ্কর] তার অনুষ্ঠানের শুরুতে বলেছিলেন যে ‘আমরা তারিখ পরিবর্তন করতে যাচ্ছি’। ভারত কখনোই এমন কথা বলে না কারণ তারা আরও ভালো প্রস্তুতি নেয় এবং যখন আপনি সঠিক প্রস্তুতি নেন, আপনি ইতিমধ্যে জানেন যে শেষ ফলাফলটি কী হতে পারে।”

বীরু এও বলেন, ২০০৩ বা ২০১১ বিশ্বকাপের তুলনায় এবার অনেক কম চাপে থাকবে ভারত। তবে সাথে সাথে তিনি এও স্বীকার করে নিয়েছেন টি-টোয়েন্টির খেলায় যা খুশি ঘটতে পারে। কারণ এখানে একজন খেলোয়াড় একা হাতেও ম্যাচ বদলে দিতে পারেন। তিনি বলেন, “ যদি আমরা বর্তমান পরিস্থিতি এবং এই ফরম্যাটের কথা বলি তাহলে আমি মনে করি এখানেই পাকিস্তানের সবসময়ই বেশি সুযোগ থাকে, কারণ তারা ৫০ ওভারের দীর্ঘ ফরম্যাটে ভালো খেলতে পারে না। কিন্তু এই ফরম্যাটে একজন খেলোয়াড় যে কোনও দলকে হারাতে পারে। কিন্তু তারপরও পাকিস্তান তা করতে পারেনি। আমরা দেখব ২৪ তারিখ কি হয়। ”

স্বাভাবিকভাবেই ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ নিয়ে এখন উত্তেজনা তুঙ্গে। কারণ ইতিমধ্যেই একদিকে যেমন নিজেদের প্রস্তুতি ম্যাচে ইংল্যান্ডকে হারিয়েছে ভারত তেমনি পাকিস্তান পর্যুদস্ত করেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে। মনে রাখতে হবে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ওয়েস্ট ইন্ডিজ মোটেই ছোট দল নয়। দু-দুবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয় করেছে তারা, এমনকি শেষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপও রয়েছে তাদের দখলেই। পাকিস্তানের পক্ষে যথেষ্ট ভালো ফর্মে রয়েছেন বাবর আজম এবং ফাকহার জামানরা। অন্যদিকে ভারতের হয়েও ভালো ফর্মে রয়েছেন রাহুল, ঈশান, রোহিত সহ একাধিক ব্যাটসম্যান। তাই লড়াই জমে যাবে তা বলাই বাহুল্য।

 

Related Articles

Back to top button