টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

নিষেধাজ্ঞায় নো পরোয়া! এবার গুজরাট দাঙ্গার তথ্যচিত্র দেখানো হবে প্রেসিডেন্সিতেও, উদ্যোগ বামেদের

বাংলা হান্ট ডেস্ক : কেরল, জেএনইউ-এর পর এবার প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয় (Presidency University)। গুজরাত দাঙ্গা (Gujarat Riot) নিয়ে বিবিসির তথ্যচিত্র ইন্ডিয়া : দ্য মোদি কোয়েশ্চন-র (India : The Modi Question) উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে কেন্দ্র সরকার। কিন্তু এই নির্দেশকে কার্যত পাত্তাই দিচ্ছে না বাম ছাত্র সংগঠনগুলি। ইতিমধ্যেই কেরলে সিপিএমের যুব সংগঠন ডিওয়াইএফআই (DYFI) সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্যজুড়ে ওই তথ্যচিত্র দেখানোর কর্মসূচি নেওয়া হবে। গতকাল সন্ধ্যায় এই তথ্যচিত্র প্রদর্শিত হয় জেএনইউতে (JNU)। এবার, গতকাল গভীর রাতে নির্দিষ্ট হয় এই বিষয়ে এসএফআই-এর (SFI) কর্মসূচিও।

সিপিএমের ছাত্র সংগঠন এসএফআই-এর প্রেসিডেন্সি কলেজ ইউনিট ঠিক করেছে ২৭ জানুয়ারি দেখানো হবে ইন্ডিয়া : দ্য মোদি কোয়শ্চেন। এবং তা প্রদর্শিত হবে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের মধ্যেই। ইউনিভার্সিটি ক্যাম্পাসের ব্যাডমিন্টন কোর্টে বিকেল চারটের সময় দেখানো হবে বলে জানিয়েছে এসএফআই। ইতিমধ্যে প্রেসিডেন্সিতে (Presidency College) ছাত্র সংসদ নির্বাচন এবং মাতৃভাষায় পরীক্ষা দেওয়ার অধিকার সুনিশ্চিত করার দাবিতে অনির্দিষ্টকালের অবস্থান বিক্ষোভ দেখাচ্ছে এসএফআই। তার মধ্যেই এই কর্মসূচি তাঁদের আন্দোলনে নতুন মাত্রা যোগ করল বলেই মনে করছে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ মহল।

presidency 2

প্রসঙ্গত, বিবিসি এই তথ্যচিত্রটি ভারতে মুক্তি দেয়নি। আমেরিকা সহ বিশ্বের আরও কয়েকটি দেশে রিলিজ করেছে বলে জানা যাচ্ছে। কিন্তু ইন্টারনেটের উন্নত প্রযুক্তির সাহায্যে এদেশে অনেকেই ইউটিউবে তথ্যচিত্রটি দেখেছেন। সেটির লিংকও শেয়ার করেছেন ইতিমধ্যেই। কেন্দ্রীয় সরকার গত রবিবার তথ্য প্রযুক্তি আইনের আওতায় ভারতের ইন্টারনেট পরিষেবা থেকে ওই তথ্যচিত্রের সমস্ত লিঙ্ক মুছে দেয়। এমনকি, এই লিঙ্ক শেয়ার করাও বেআইনি বলে উল্লেখ করা হয়েছে সরকারি নির্দেশিকায়।

এসএফআই-র রাজ্য সম্পাদক সৃজন ভট্টাচার্য জানান, ‘তথ্যচিত্রটি প্রদর্শনের ব্যাপারে আলোচনা চলছে।’ গতকাল রাতেই বাম ছাত্র সংগঠনের পক্ষ থেকে প্রেসিডেন্সি ইউনিট সেই কর্মসূচি ঘোষণা করে দিয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে এই বিষয়ে এখনও পর্যন্ত কোনও বিবৃতি দেওয়া হয়নি।

Related Articles