টাইমলাইনবিনোদন

‘হানি সিংকে সামনাসামনি দেখেও চিনতে পারিনি’, ফের বিষ্ফোরক শান

বাংলাহান্ট ডেস্ক: র‍্যাপার-গায়ক হানি সিং (honey singh) এর সম্পর্কে ফের বিষ্ফোরক জনপ্রিয় গায়ক শান (shaan)। মুখোমুখি সাক্ষাৎ হলেও ইয়ো ইয়ো হানি সিংকে নাকি চিনতে পারেননি শান। তিনি ক্ষমা চাইলে নাকি বেজায় কষ্টও পেয়েছিলেন হানি সিং। এক চ‍্যাট শোয়ে এ কথা স্বীকার করেছিলেন শান।

উল্লেখ‍্য, হানি সিংয়ের মিউজিক সম্পর্কে একবার বিষ্ফোরক মন্তব‍্য করতে শোনা গিয়েছিল শানকে। তিনি মন্তব‍্য করেছিলেন, র‍্যাপ গানগুলির মধ‍্যে মিউজিকের কোনো গুণই নেই। হানি সিংএর কয়েকটি গান উল্লেখ করে তিনি বলেছিলেন এই ধরনের গান গুলি সকলেই গাইতে পারে।


এই বিতর্কিত মন্তব‍্যের পরপরই শান স্বীকার করেন হানি সিংকে সামনা দেখেও তিনি চিনতে পারেননি। গায়ক তথা সুরকার সেলিম মার্চেন্টের একটি চ‍্যাট শোয়ে এসে এই বিতর্কিত মন্তব‍্যের প্রসঙ্গ ওঠে। তখনি শান জানান একটি পার্টিতে গিয়ে হানি সিংয়ের সঙ্গে দেখা হয়েছিল তাঁর।

গায়ক জানান, মানুষের নাম ভুলে যাওয়ার প্রবণতা রয়েছে তাঁর। উপরন্তু হানি সিংকে তিনি সামনাসামনি কখনোই দেখেননি তার আগে। শান বলেন, “হানি সিংয়ের মিউজিক ভিডিওগুলিতে ওঁকে অনেক রোগা দেখেছিলাম। জানতাম না ওঁর ওজন অতটা বেড়ে গিয়েছে। পার্টিতে সবাই ওঁর মুভস নকল করছিল। তাই আমি ওঁকে চিনতে পারিনি।”

শান আরো বলেন, “আমাকে দেখে খুব ভালবেসেই কথা বললেন। বললেন, ‘শান স‍্যার আমি আপনাকে অনুসরণ করতাম।’ আমি ধন‍্যবাদ দিলাম। তারপরেই হঠাৎ আমি চিনতে পারলাম ওঁকে। আর বোকার মতো আবার ফিরে গিয়ে ক্ষমা চাইলাম না চেনার জন‍্য। একটু হতাশ দেখাচ্ছিল ওঁকে। আমার খুব বোকা মনে হচ্ছিল নিজেকে।”

প্রসঙ্গত, এই মন্তব‍্যের সপ্তাহ খানেক আগেই শান দাবি করেছিলেন, র‍্যাপ গানগুলির কোনো মিউজিক গুণই নেই। তিনি বলেন, “খুব কম মানুষই গান।বোঝে। আমাদের পক্ষে তো সকলকে গান শেখানো সম্ভব নয়। র‍্যাপ গান এত জনপ্রিয় কেন আজ? গালিগালাজ ব‍্যবহার হয় তাই? না, কারণ সেগুলীতে কোনো গানের গুণই নেই। চার বোতল ভদকা, সানি সানি, লুঙ্গি ডান্স এর মতো গান সকলেই গাইতে পারে।”

Related Articles

Back to top button