fbpx
আন্তর্জাতিকটাইমলাইন

শোকের ছায়া স্পেন জুড়েঃ করোনার আক্রমণে প্রাণ ত্যাগ করলেন রাজকন্যা মারিয়া টেরেসা

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ রেহাই পেলেন না স্পেনের (Spain) রাজকন্যা মারিয়া টেরেসাও। করোনা (COVID-19) কেড়ে নিল আরও একটি প্রাণ। শুক্রবার শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন তিনি। মারণরোগ করোনা ভাইরাসের প্রকোপ থেকে রক্ষা পেলেন না তিনি। পরিবারের বাকি সদ্যসদের রাখা হল আইসোলেশনে।

মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছ চীন, ইতালি, স্পেন। এই তালিকায় খুব শীঘ্রই নাম লেখাতে পারে আমেরিকাও। বর্তমানে করোনা আক্রান্তের দিক থেকে চীনকেও ছাড়িয়ে গিয়েছে আমেরিকা। বিশ্ব এখন আতঙ্কিত। এই আতঙ্কের ছায়া এবার এসে পড়ল স্পেনের রাজপরিবারের উপর। করোনায় আক্রান্ত হয়ে স্পেনের রাজপরিবারের সদস্যা এই প্রথম প্রাণ হারালেন। রাজকন্যা মারিয়া টেরেসা ১৯৩৩ সালে প্যারিসে জনগ্রহণ করেছিলেন। মাদ্রিদে তিনি তাঁর জীবনের বেশিরভাগ সময় অতিবাহিত করেছিলেন।

৮৬ বছর বয়সী স্পেনীয় রাজকন্যা বেশ কিছুদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন। কিন্তু মারণরোগ করোনা ভাইরাসের হাত থেকে তিনিও রেহাই পেলেন না। ভাইরাসের সঙ্গে যুদ্ধে হেরে গেলেন রাজকন্যা। শোকের ছায়া নেমে এল রাজপরিবারে। রাজকন্যার ভাই প্রিন্স সিক্সটাস হেনরি রাজকন্যার মৃত্যু সংবাদ প্রকাশ করেন। করোনার বিরুদ্ধে লড়ার জন্য সবরকম সুরক্ষা ব্যবস্থা গ্রহণ করেও শেষ রক্ষা হল না।

স্পেনের রাজপরিবারের মতই এখন আতঙ্কে রয়েছে ব্রিটিশ রাজপরিবারও। সম্প্রতি করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রিন্স চার্লস নিজেকে সেলফ আইসোলেশনে রেখেছেন। কিছুদিন ধরেই নানান শারীরিক অসুস্থায় ভুগছিলেন তিনি। তারপর করোনার নানা উপসর্গ তাঁর শরীরে প্রকাশ পেলে, তাঁকে পরীক্ষা করা হয়। রিপোর্ট পজেটিভ আসায় তিনি নিজেকে সেলফ আইসোলেশনে রাখেন। প্রিন্স চার্লসের স্ত্রী ডাচেস অফ কর্নওয়াল ক্যামিলার শরীরে এই রোগের জীবাণু প্রবেশ না করলেও, তিনিও স্কটল্যান্ডে সেল্‌ফ আইসোলেশনে রয়েছেন।

Back to top button
Close
Close