টাইমলাইনটেক নিউজ

বর্জ্য পদার্থ দিয়ে তৈরি রবোট, দেখতে সুন্দর না হলেও প্রতিভা শুনলে হবেন অবাক

প্রধানমন্ত্রীর ‘ডিজিটাল ইন্ডিয়া মিশন’ ও সিনেমার ‘রোবট’ দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে নিজেই রোবট বানিয়ে ফেললেন আইআইটি মুম্বাইয়ের কেন্দ্রীয় স্কুলের শিক্ষক দীনেশ প্যাটেল। যেটি ইংরেজি ছাড়াও আরও ৯টি দেশীয় ভাষায় কথা বলতে সক্ষম। দীনেশের বানানো এই রোবটের নাম ‘শালু’।

রোবট ‘শালু’ দেশীয় ভাষা ছাড়াও আরও ৩৮টি আন্তর্জাতিক ভাষায় কথা বলতে পারে। এর পাশাপাশি ‘শালু’ কাউকে চিন্তে পারা, মুখস্থ করা, অঙ্ক করা ও এমনকি জেনারেল নলেজেরও জবাব দিতে পারে। এখানেই শেষ নয়। দীনেশ প্যাটেলের এই আশ্চর্যজনক আবিষ্কার সংবাদপত্র পাঠ, আবৃত্তি করা ও আবেগ প্রকাশেও সাবলীল।

ROBOT

এত গুণের অধিকারী ‘শালু’-কে কীভাবে বানানো হল, জানলে আপনিও অবাক হবেন। ‘শালু’র স্রষ্টা দীনেশ ত্রিবেদী জানান, শালু শুধুমাত্র বর্জ্য পদার্থ দিয়ে তৈরি। ফেলা দেওয়া প্লাস্টিক, পিচবোর্ড, কাঠ এবং অ্যালুমিনিয়াম দিয়েই তিনি বানিয়ে ফেললেন হংকং এর ‘হ্যানসন রোবটিক্স’ সংস্থার সৃষ্টি ‘সোফিয়া’-র মতই দেশি ‘শালু’। যাকে বানাতে শুধুমাত্র ৫০ হাজার টাকা ব্যয় করেন দীনেশ। আর সময় নেন ৩ বছর।

Robot

তবে এই ‘শালু’-কে নিয়ে একটি নেতিবাচক দিক হল, তাকে দেখতে ততটা সুন্দর নয়। কিন্তু তারও উপায় বাতলে দিলেন শিক্ষক দীনেশ। তিনি বলেন, কেউ একজন সুন্দর মুখোশ তৈরি করে দিলেই শালুকে দেখতে সুন্দর লাগবে।

অন্যদিকে ‘শালু’কে কোন কোন কাজে ব্যবহার করা যেতে পারে, এই প্রশ্নের জবাবে দীনেশ জানান, শালু-কে স্কুলের শিক্ষক, অফিসের রিসেপশনিস্টের মত একাধিক কাজে ব্যবহার করা যেতে পারে। দীনেশের এমন সৃষ্টি-কে বাহবা জানাচ্ছে গোটা দেশ। এমনকি তার এই সৃষ্টি আগামী প্রজন্মের বিজ্ঞানীরদের কাছে অনুপ্রেরণাও হয়ে উঠবে বলে অনেকেই মতামত দিচ্ছেন।

Related Articles

Back to top button