টাইমলাইনবিনোদন

ইলেকট্রিক বিল বাকি বলে মেসেজ, লিঙ্কে ক্লিক করতেই ব‍্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট ফাঁকা শান্তিলাল মুখোপাধ‍্যায়ের!

বাংলাহান্ট ডেস্ক: সাইবার জালিয়াতির শিকার হলেন প্রখ‍্যাত অভিনেতা শান্তিলাল মুখোপাধ‍্যায় (Shantilal Mukherjee)। ইলেকট্রিক বিলের নাম করে তাঁর মোবাইল ফোনে একটি লিঙ্ক এসেছিল। সেটিতে ক্লিক করা মাত্রই সর্বনাশ। ব‍্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে থাকা আড়াই লক্ষ টাকা হাপিস হয়ে গিয়েছে অভিনেতার।

শান্তিলাল জানান, গত ১৩ জুন তাঁর মোবাইলে একটি মেসেজ আসে এই জানিয়ে যে, বিদ‍্যুতের বিল না মেটালে সেদিন রাতের মধ‍্যেই বিদ‍্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হবে। অভিনেতা অনলাইনে অ্যাপের মাধ‍্যমে তখনি বিল মিটিয়ে দিয়েছিলেন। কিন্তু তার পরপরই একটি অচেনা ফোন নম্বর থেকে তাঁর কাছে ফোন আসে। বলা হয় যে টাকা পৌঁছায়নি। পুনরায় অতিরিক্ত ১১ টাকা দিতে হবে তাঁকে।


তারপরেই পাঠানো হয় লিঙ্কটি। সন্দেহ করেননি শান্তিলাল। লিঙ্কে ক্লিক করার পরেই ব‍্যাঙ্ক থেকে ফোন আসে অভিনেতার কাছে। জানানো হয়, একটু আগেই আড়াই লাখ টাকা উধাও হয়ে গিয়েছে তাঁর অ্যাকাউন্ট থেকে। প্রতারিত হয়েছেন সেটা বুঝতে পেরেই লালবাজারের সাইবার সেল এবং সরশুনা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন অভিনেতা।

সাইবার জালিয়াতির সংখ‍্যা ইদানিং মারাত্মক হারে বেড়েছে। এর আগেও একাধিক বার অনেক তারকাই প্রতারণার শিকার হয়েছেন। হ‍্যাকারদের পাঠানো লিঙ্কে ক্লিক করায় চলে গিয়েছে লক্ষ লক্ষ টাকা। সাইবার সেলে অভিযোগ করে উপকার মিলেছে অনেক ক্ষেত্রেই। তবে শান্তিলাল মুখোপাধ‍্যায়ের আড়াই লাখ টাকা ফেরত পাওয়া যাবে কিনা সেটাই এখন লাখ টাকার প্রশ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে।

সোশ‍্যাল মিডিয়াতেও এই ধরনের কাণ্ডকারখানা বেড়েছে। অতি সম্প্রতি ভুয়ো অ্যাকাউন্ট নিয়ে অনুগামীদের সতর্ক করেছেন অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র। তিনি লিখেছেন, ‘আমার নাম নিয়ে এই অ্যাকাউন্ট থেকে আমার চেনাজানাদের ফোন করা হচ্ছে। অশ্লীল ছবি পাঠানো হচ্ছে। দয়া করে রিপোর্ট করুন। এটা ভুয়ো অ্যাকাউন্ট। কেউ আমার বদনাম করার চেষ্টা করছে।’

কে বা কারা এই ভুয়ো প্রোফাইল খুলে তাঁর মানহানির চেষ্টা করছে তা এখনো জানতে পারেননি শ্রীলেখা। তবে অ্যাকাউন্টটি যাতে বন্ধ করা যায় সেই চেষ্টা করছেন তিনি।

Related Articles