টাইমলাইনবিনোদন

কাজ দেওয়ার নামে মহিলাদের বাড়িতে ডেকে তারপর…ফের সাজিদ খানের বিরুদ্ধে বিষ্ফোরণ শার্লিনের

বাংলাহান্ট ডেস্ক: কিছুদিন আগেই বলিউড (bollywood) পরিচালক সাজিদ খানের (sajid khan) বিরূদ্ধে যৌন হেনস্থার (sexual harassment) অভিযোগ এনেছিলেন মডেল অভিনেত্রী শার্লিন চোপড়া (sherlyn chopra)। নিজের বাড়িতে ডেকে তিনি নিজের গোপনাঙ্গ স্পর্শ করতে বলেছিলেন বলে অভিযোগ করেন শার্লিন।

এবার ফের পরিচালকের বিরুদ্ধে বিষ্ফোরক অভিযোগ এনেছেন অভিনেত্রী। এক সংবাদ মাধ‍্যমের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, সাজিদ খান মহিলাদের কাজ দেওয়ার নাম করে বাড়িতে ডাকেন। তারপরেই নিজের আসল রূপ দেখান। তবে পরিচালকের বিরুদ্ধে আইনি ব‍্যবস্থা নিতে চান না তিনি। শার্লিনের কথায়, তিনি শুধু চান সাজিদ খান সব মহিলাদের কাছে প্রকাশ‍্যে ক্ষমা চান।


শুধু পরিচালকই নন, বলিউডের হেভিওয়েটদের উদ্দেশেও ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন শার্লিন। সাজিদের চরিত্র এমন জেনেও খান, কাপুররা তাঁর সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছেন। তাঁকে সমানে সমর্থন করে চলেছেন। শার্লিন বলেন, অভিনেতা আভিনেত্রীরা সকলের সামনে মানসিক স্বাস্থ‍্যের কথা প্রচার করেন। অপরদিকে নিজেদের বাড়ির ভেতরে মাদকের নেশায় ডুবে থাকেন।

তিনি দাবি করেন ২০০৬ সালে যখন তিনি পরিচালকের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন তখন তাঁর সঙ্গে অত‍্যন্ত অস্বস্তিজনক ব‍্যবহার করেছিলেন তিনি। নিজের পুরুষাঙ্গ বের করে শার্লিনকে অনুভব করার জন‍্য বলেছিলেন সাজিদ। অভিনেত্রী জানান, তাঁর বাবার মৃত‍্যুর কয়েকদিন পরেই ঘটেছিল এই ঘটনা।

এর আগেও একাধিক বার সাজিদের বিরুদ্ধে মিটু্র অভিযোগ উঠেছে। অভিনেত্রী সালোনি চোপড়া, র‍্যাচেল হোয়াইট, মন্দানা কারিমি সহ বেশ কয়েকজন মডেল ও অভিনেত্রী যৌন হেনস্থার অভিযোগ তুলেছিলেন সাজিদ খানের বিরুদ্ধে। এমনকি একজন সাংবাদিক অভিযোগ জানান, একটি সাক্ষাৎকারের সময় নিজের পুরুষাঙ্গ বের করেছিলেন পরিচালক।

সম্প্রতি সংবাদ সংস্থা বিবিসির একটি ডকুমেন্টরির অন্তর্ভুক্ত ভিডিওতে সাজিদ খানের বাড়িতে নিজের অভিজ্ঞতার কথা বলতে শোনা যায় প্রয়াত জিয়া খানের বোন করিশ্মা খানকে।
তিনি জানান, এই ঘটনা যখন ঘটেছিল তখন তাঁর বয়স মাত্র ১৬। দিদি জিয়া খানের সঙ্গে সাজিদের বাড়িতে গিয়েছিলেন তিনি। সেদিন একটি সরু স্ট‍্র‍্যাপের পোশাক পরেছিলেন করিশ্মা। অনেকক্ষণ ধরে তাঁকে লক্ষ‍্য করছিলেন সাজিদ। একটা সময় তিনি জিয়াকে বলে ওঠেন, করিশ্মা তাঁর সঙ্গে সঙ্গম করতে চান।

এখানেই শেষ নয়। করিশ্মা আরো জানান, সাজিদের বাড়িতে ছবির চিত্রনাট‍্য পড়তে গিয়েছিলেন জিয়া। তখন পরিচালক তাঁকে তাঁর পোশাক ও অন্তর্বাস খুলতে বলেন। সেদিন বাড়ি ফিরে জিয়া রীতিমতো ভেঙে পড়েছিলেন বলে জানান করিশ্মা। জিয়া বলেছিলেন, তিনি চুক্তিবদ্ধ। এমন অবস্থায় ছবি না করলে তাঁর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হবে। আর ছবি করতে হলে তাঁকে যৌন হেনস্থা সহ‍্য করতে হবে।

Back to top button