টাইমলাইনভারতখেলাআন্তর্জাতিকক্রিকেট

বিবাহ বিচ্ছেদের যন্ত্রণার সঙ্গে দল থেকে বাদ পড়া! প্রথমবার ইনস্টাগ্রামে আবেগি বার্তা শিখরের

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ কে এল রাহুল দুরন্ত ফর্মে কামব্যাক করার পর থেকেই মনে হয়েছিল শিখর ধাওয়ানের জন্য বিশ্বকাপের যাত্রা কঠিন হতে চলেছে। কার্যত সকলেরই অনুমান সত্যি প্রমাণিত হয়েছে এক্ষেত্রে। কারণ বিশ্বকাপগামী ভারতীয় দলে সুযোগ পাননি রোহিতের সতীর্থ এই বাঁহাতি ওপেনার। তবে ব্যক্তিগত জীবনেও বর্তমানে প্রায় দুঃখের পাহাড় ভেঙে পড়েছে শিখর ধাওয়ানের উপর। কারণ কিছুদিন আগেই স্ত্রীর সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটেছে তার। তার উপর ভারতীয় দলের কামব্যাক করারও সুযোগ পেলেন না এই ওপেনার।

কার্যত গত কয়েকদিন আগেই নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকে শিখর পত্নী আয়েশা মুখোপাধ্যায় জানান তার আর শিখরের মধ্যে বিবাহবিচ্ছেদ ঘটে গিয়েছে। ৮ বছরের বৈবাহিক জীবনের পর এ ধরনের ধাক্কা সহ্য করা নিশ্চিত ভাবেই কঠিন। তার ওপর বিশ্বকাপের দল ঘোষণার পর ফের একবার যন্ত্রণা বেড়েছে শিখরের। প্রথম পছন্দের ওপেনার হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছে রোহিত এবং রাহুলকে। এমনকি স্ট্যান্ডবাই খেলোয়াড় হিসেবেও দলে সুযোগ পাননি ধাওয়ান।

তারপর এই প্রথমবার নিজের ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে নিজের অনুভূতি তুলে ধরলেন এই বাঁহাতি ওপেনার। এদিন নিজের ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে একটি হাসি মুখের ছবি শেয়ার করে তিনি লেখেন, ”হাসতে থাকুন কারণ এটাই আপনার সবচেয়ে বড় শক্তি।” তারই ছোট্ট বার্তা মন ছুঁয়ে গিয়েছে ভক্তদের। জীবনে এর আগেও অনেক কঠিন পর্যায় পেরিয়ে এসেছেন শিখর। ফের একবার ফিরে আসার জন্যই এখন প্রস্তুত হতে হবে তাকে।

সুযোগ যে অবশ্য একেবারেই নেই তা নয়, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ঠিক আগেই রয়েছে আইপিএল। সেখানে দিল্লি ক্যাপিটালসের হয়ে ওপেন করতে দেখা যাবে ভারতীয় দলের গব্বরকে। আইপিএলের প্রথম পর্বে অবশ্য দুর্দান্ত ফর্মে ছিলেন তিনি। আটটি ম্যাচে ৫৪.২৭ গড়ে সংগ্রহ করেছিলেন ৩৮০ রান। দ্বিতীয় পর্বেও নিশ্চয়ই সেই ফর্ম ধরে রাখতে চাইবেন ধাওয়ান, যদিও কাজটা যে কঠিন এ নিয়ে কোন সন্দেহ নেই।

 

Related Articles

Back to top button