টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গবিধানসভা নির্বাচনরাজনীতি

‘শুধু মুখ কেন, প্রয়োজন হলে হাতও চালাতে পারি আমি’, হুঙ্কার দিলেন দিলীপ ঘোষ

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ একুশের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ব্রহ্মাস্ত্র ছাড়লেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। পাল্টা আক্রমণ করলেন দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। চাঁচাছোলা ভাষা ব্যবহারের জন্য প্রথম থেকেই বিজেপির (bjp) রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের দুর্নাম রয়েছে। এবার সেই অস্ত্রকেই হাতিয়ার করে মোক্ষম জবাব ছুঁড়ে দিলেন দিলীপ ঘোষ।

সম্প্রতি তৃণমূলের ছত্রছায়া ত্যাগ করে বিজেপি শিবিরে গিয়ে নাম লিখিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। সোনার বাংলা গড়ে তোলার জন্য নরেন্দ্র মোদীর হাতে পশ্চিমবঙ্গকে তুলে দেওয়ার অনুরোধ করেছিলেন রাজ্যবাসির কাছে। শুভেন্দুর এই দল বদলের বিষয়টা ঠিকমত হজম করতে পারেনি তৃণমূল। তাই এবার সেফ খেলতে নন্দীগ্রামে দাঁড়ানোর ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল (tmc) নেত্রী মমতা ব্যানার্জি (Mamata Banerjee)।

নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নন্দীগ্রামের মানুষকে হাতে রাখতে সোমবার নন্দীগ্রামে সভা করলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা ব্যানার্জি। নন্দীগ্রামে মমতা ব্যানার্জির সভার পাল্টা দিতে একই দিনে টালিগঞ্জ থেকে রাসবিহারি পর্যন্ত বিশাল মিছিল বের করল রাজ্য বিজেপি। উপস্থিত ছিলেন শুভেন্দু অধিকারী, দিলীপ ঘোষ সহ আরও অন্যান্যরা।

মিছিল শেষে মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণার পর পাল্টা জবাব দিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। নির্বাচনে বাংলার মসনদে বিজেপির প্রার্থী বসানোর হুঙ্কার দিয়ে তিনি বলেন, ‘আগে থাকতে মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী নির্বাচন করার কোন প্রয়োজন নেই আমাদের। ২৩ শে মের ফলপ্রকাশের পরই দেখবেন নবান্নে বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী আসন দখল করে বসে রয়েছেন। লোকে যেমন আমাকে দুর্মুখ বলেন, তেমন কিছু আমি মুখের মত প্রয়োজনে হাতও চালাতে পারি’।

Back to top button