টাইমলাইনখেলাক্রিকেট

“আমরা প্রথম থেকেই আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে বিশ্বাসী নই”, ম্যাচ হেরে মন্তব্য শ্রেয়স আইয়ারের

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক: ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে হারের পর থেকেই এই সমালোচনাটা হয়ে আসছিল, নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ওডিআই সিরিজের প্রথম ম্যাচ হারামাত্র তা আরও বেড়ে যায়। ভারতীয় দল সীমিত ওভারের পদ্ধতিতে এমন মনোভাব ও পদ্ধতিতে খেলছে যা বর্তমান যুগে অচল, এই ধারণা এখন ক্রিকেটপ্রেমীদের মনে বদ্ধমূল হয়ে গিয়েছে।

ভারতের নিউজিল্যান্ডের কাছে হারের পর প্রাক্তন ইংল্যান্ড অধিনায়ক মাইকেল ভনও ঠিক একইরকম ধারণা পোষণ করেছেন। ওয়াসিম জাফরের টুইটের উত্তরে ভন সরাসরি জানিয়েছেন যে ভারত অচল পদ্ধতিতে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে মাঠে নামছে। এর আগেও ইংল্যান্ড টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ের পর তিনি ভারতীয় দলকে অহংকার ছেড়ে ইংল্যান্ডের কাছ থেকে বর্তমানে সীমিত ওভারের ক্রিকেটের প্রতি কেমন মনোভাব নিয়ে এগুলো উচিত সেটা শিখতে বলেছিলেন ভারতকে।

ভারতের হারের পর সাংবাদিক সম্মেলনে শ্রেয়স আইয়ারকেও এই প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হয়েছিল। তিনি যদিও ওডিআই ফরম্যাটে নিজের ধারাবাহিকতা বজায় রেখেছেন। কাল ভারতের হারের দিনে তিনি ৭৪ বলে ৮০ রানের একটি দুর্দান্ত ইনিংস খেলে ভারতের সর্বোচ্চ রান-সংগ্রাহক হয়েছিলেন।

Shreyas Iyer,Team India,India vs New Zealand,India's batting

কিন্তু ভারত ৩০৬ রানের বড় স্কোর তুললেও নিউজিল্যান্ড ১৭ বল বাকি থাকতেই সেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায়। অসাধারণ শতরান করেন টম ল্যাথাম। সাংবাদিক সম্মেলনে ভারতীয় দলের পাওয়ার প্লে-তে আরও আগ্রাসী ব্যাটিং করা উচিত কিনা সেই প্রশ্নের জবাবে আইআর বলেছেন, “আমরা ফ্রিজে গিয়েই ব্যাট চালানোর তত্ত্বে বিশ্বাসী নই। আগে আমাদের পিচ কেমন সেইটা বুঝে নিতে হবে তারপর একটা সম্ভাব্য স্কোর মাথায় ছঁকে ফেলতে হবে এবং সেই অনুযায়ী ব্যাটিংটা করতে হবে।”

কিন্তু এই মনোভাব থাকা সত্ত্বেও ভারতীয় দল হারলো কেন সেই প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়ে শ্রেয়স আইয়ার বলেছেন যে ম্যাচে অনেক ছোটখাট ঘটনাই ম্যাচের ভাগ্য পরিবর্তন করে দিতে পারে ভারতের এই তরুণ দলটা এখনো শিখছে এবং তারা যত খেলবে ততই উন্নতি করবে এবং ফলাফলও তাদের পক্ষে যাবে ক্রমশ।

Related Articles