টাইমলাইনবিনোদন

শেষমেষ কিনা মিঠাইকে ভেঙচি কাটল ‘উচ্ছেবাবু’! কাণ্ড দেখে হেসে লুটোপুটি খাচ্ছে দর্শকরা

বাংলাহান্ট ডেস্ক: বাঙালি হৃদয়ে ‘মিঠাই’এর (mithai) জয়জয়কার অব‍্যাহত। টানা মাস কয়েক ধরে টিআরপি তালিকার একেবারে শীর্ষে নিজের স্থান ধরে রেখেছে জি বাংলার এই সিরিয়াল। লকডাউনের ‘শ‍্যুট ফ্রম হোম’এর সমস‍্যাও টলাতে পারেনি মিঠাইকে। এই সপ্তাহেও সর্বাধিক পয়েন্ট নিয়ে বাংলা সেরা মিঠাই।

দর্শকদের মিঠাইকে ভালবাসার কারণও রয়েছে যথেষ্ট। শুধু মিঠাই নয়, মোদক বাড়ির প্রতিটা সদস‍্যেরই রয়েছে নিজস্ব কাহিনি যেগুলো একই রকম গুরুত্বপূর্ণ। যৌথ পরিবারের এই কাহিনি তাই অচিরেই মন জয় করে নিয়েছে সবার।সিরিয়ালের মূল দুই চরিত্র মিঠাই ও সিদ্ধার্থের (siddharth) প্রথমে বনিবনা না হলেও যত সময় এগোচ্ছে ততই নিজের অজান্তেই একটু একটু করে মিঠাইয়ের প্রতি অনুরক্ত হয়ে পড়ছে সিড।


এখন তো অবস্থা এমন মিঠাইয়ের সঙ্গে থেকে থেকে তাকে নকলও করতে শুরু করে দিয়েছে ‘উচ্ছে বাবু’। সিরিয়ালের গত এপিসোডে দেখানো হয়েছে জ্বর হওয়ায় চিকিৎসকের পরামর্শে আলাদা ঘরে থাকছে সিদ্ধার্থ‍। অপরদিকে রাজীবের বাড়ি থেকে আবার মোদক বাড়িতে ফিরে এসেছে মিঠাই। আর এসেই উচ্ছে বাবুর জন‍্য খাবার নিয়ে তাঁর শরীরের অবস্থা জানতে হাজির ঘরের বাইরে।

উদ্বিগ্ন মিঠাইয়ের একের পর এক প্রশ্নে বিরক্ত হয়ে শেষে মিঠাইকেই ভেঙচি কেটে বসে সিড। এতদিন দর্শকেরা মিঠাইকেই দেখে এসেছে উচ্ছে বাবুর নকল করে তাকে ভেঙাতে। আর এই করতে গিয়ে একাধিকবার সিদ্ধার্থের হাতে ধরা পড়ে বকাও খেয়েছে সে। কিন্তু ওই যে ‘মিঠাই ইস্পিড কন্ট্রোল করতে পারে না।’

কিন্তু এবার উলটো ব‍্যাপার দেখে বিষম খেয়েছে দর্শকেরাও। উচ্ছে বাবুর এই ‘মিষ্টি’ ভেঙচি দেখে হেসেও লুটোপুটি খাচ্ছে তারা। এখন শুধু অপেক্ষা কবে সিড নিজের মন বুঝতে পারবে। মিঠাইয়ের প্রতি তার ভাললাগাটা সে কবে নিজেই উপলব্ধি করতে পারবে সেই আশায় দিন গুনছে মিঠাই ভক্তরা।

Related Articles

Back to top button