টাইমলাইনবিনোদন

মিঠাই রাঁধবে চিতল মুইঠ‍্যা, চ‍্যালেঞ্জ নিয়ে মাছ কিনতে বাজারে ছুটল সিড

বাংলাহান্ট ডেস্ক: সংসার করতে গেলে কত কিছুই না করতে হয়। যে কোনোদিন কুটোটি নেড়েও আলাদা করেনি সেও হয়ে ওঠে পাকা সংসারী। আর সে ঝক্কিই এখন হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছে সিড (siddharth)। দাদাইয়ের সঙ্গে বাজি ধরে এক মাস যে তাকে মিঠাইয়ের (mithai) স্বামীর ভূমিকা পালন করতেই হবে। তাই এই বেলা সুযোগ পেয়ে দাদুর ‘লাটসাহেব নাতি’কে বেশ প‍্যাঁচেই ফেলেছে মোদক বাড়ির সকলে।

জি বাংলার ‘মিঠাই’ বলের পর বলে ছক্কা হাঁকিয়ে চলেছে। টানা কয়েক সপ্তাহ ধরে সেরার স্থান ধরে রেখেছে। একের পর এক চমক আর জমাটি এপিসোড আসছে সিরিয়ালে। প্রথমে সিড মিঠাইয়ের ডিভোর্স, সে ডিভোর্স প্রায় হতে হতেও ভেস্তে গিয়ে হল কিনা ফুলশয‍্যা! আর এখন দাদাই ও হল্লা পার্টির সঙ্গে চ‍্যালেঞ্জ নিয়ে একের পর এক চমকে দেওয়ার কাণ্ড করছে সিড।


গত এপিসোডেই দর্শক তাকে দেখেছে মিঠাইয়ের হাতের লুচি আলুর দম ছুরি কাঁটা দিয়ে সাহেবি ঢঙে খেতে। এবার সিডের সামনে আরো এক বড় পরীক্ষা। মিঠাইয়ের মামাশ্বশুর আসছেন এবং নাতবৌয়ের হাতেই চিতল মুইঠ‍্যা খেতে চান তিনি। মিঠাই তো রেঁধে দেবে, কিন্তু বাজার করবে কে? অবশ‍্যই সিড। যে কিনা জীবনেও বাজারে যায়নি সেও চ‍্যালেঞ্জ নিয়ে মাছ আনতে ছুটল বাজারে। এবার সিড কেমন মাছ আনে আর মিঠাই বা মামাশ্বশুরের মন জয় করতে পারে কিনা সেটাই এখন দেখার।

অতি সম্প্রতি দেখানো হয়েছে সিড মিঠাইয়ের ডিভোর্সের পর ফুলশয‍্যা। দাদাই সাফ জানিয়ে দেন যে দুজনকেই একই খাটে শুতে হবে, নয়তো জুটবে কানমলা। এদিকে মিঠাই নীচে বিছানা করে শুতে গেলে তাকে কোলে তুলে খাটে শুইয়ে দেয় সিড। কিন্তু এত গয়নাগাঁটি পরে মিঠাইয়ের তো ঘুমোনোর অভ‍্যাস নেই।

তাই সিড নিজেই স্ত্রীর গয়না খোলার দায়িত্ব নেয়। দুজনে যত কাছাকাছি আসছে ততই বাড়ছে দর্শকদের উত্তেজনা। আর তার প্রমাণও পাওয়া গিয়েছে টিআরপি তালিকায়। সিড মিঠাইয়ের ফুলশয‍্যা চরম হিট। দশ এর ও বেশি টিআরপি নিয়ে এবারেও বাংলা সেরা মিঠাই।

Related Articles

Back to top button