টাইমলাইনভারত

বড় ঘোষণা করলেন নিতিন গডকরি, গাড়ির মালিকরা পেতে চলেছে আরও সুযোগ সুবিধা

বাংলাহান্ট ডেস্ক : চারচাকা ব্যবহারকারীদের জন্য সুখবর। দারুণ এক ঘোষণা করলেন কেন্দ্রীয় পরিবহন মন্ত্রী নিতিন গডকরি। তিনি বলেন, কেন্দ্রীয় সরকার আট সিট আছে এমন গাড়ির জন্য অন্তত ছটি সিটে এয়ারব্যাগ বাধ্যতামূলক করতে চলেছে। এর দ্বারা গাড়ি প্রস্তুতকারক সংস্থাগুলি গাড়িতে ছটি এয়ারব্যাগ লাগিয়ে গাড়িকে আরও সুরক্ষিত করতে পারবে। প্রত্যেক বছর দেশে ৫ লক্ষেরও বেশি সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে, তাতে প্রায় ১.৫ লক্ষ মানুষ মারা যান বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী একটি ঘোষণায় জানান সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রত্যেক গাড়িতে অন্তত ছটি এয়ারব্যাগ লাগানোর নির্দেশ দেওয়া হবে। তিনি বলেন, আমাদের মানুষকে বাঁচাতে হবে। সেই জন্য গাড়ি প্রস্তুতকারী সংস্থাগুলির সঙ্গে সমস্ত পক্ষের সহযোগিতা প্রয়োজন। ভারতে সড়ক দুর্ঘটনাকে কম করার জন্য এবং পথের সুরক্ষা জোরদার করার জন্য ইন্টেল শিল্প জগত, শিক্ষা জগত এবং সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলিকে নিয়ে দিল্লিতে একটি সভা আয়োজন করেছে। এই সভার মূল উদ্দেশ্যই হলো ভারতের সড়ক পথকে আরও সুরক্ষিত করা।

সম্প্রতি, কেন্দ্রীয় সড়ক ও পরিবহন মন্ত্রী নীতিন গডকরি ঘোষণা করেন, এক বছরের মধ্যেই দেশে পেট্রোল চালিত গাড়ির দাম  ও বিদ্যুৎ চালিত গাড়ির প্রায় দাম এক হয়ে যাবে। তিনি সেদিন আরও জানান, পেট্রোল ও ডিজেলের বদলে ফসলের বেঁচে যাওয়া অংশ দিয়ে ইথানল তৈরিতে নজর দিয়েছে কেন্দ্র সরকার। নিতিন গডকরি আরও বলেন, ‘এক বছরের মধ্যেই দেশে পেট্রোল চালিত গাড়ির মূল্যের কাছে চলে আসবে বিদ্যুৎ চালিত গাড়ির মূল্য। এবং আমরা জীবাশ্ম জ্বালানি ব্যবহার না করে অর্থ সাশ্রয় করব।’

তিনি জানান, ভারত সরকার এখনই বৃহত্তরভাবে ফসলের বেঁচে যাওয়া অংশকে জ্বালানি হিসেবে কাজে লাগানোর তোরজোর শুরু করে দিয়েছে। মনে রাখতে হবে যে স্থলপথের তুলনায় জলপথে যাতাযাতের খরচ কিন্তু অনেক কম। আর এই বিষয়টিকেই তুলে ধরতে তৎপর কেন্দ্রীয় সরকার।

Related Articles

Back to top button