টাইমলাইনবিজ্ঞান

হাওয়া খেয়েই ভরবে পেট! বাতাসের কার্বন ডাই-অক্সাইড দিয়ে ময়দার মতো খাবার তৈরি করলেন বিজ্ঞানীরা

ছোটোবেলা থেকে নিশ্চয়ই শুনেছেন হাওয়া খেয়ে পেট ভরে না। কিন্তু এবার সেই অসম্ভবকেই সম্ভব করতে চলেছে ফিনল্যান্ডের সোলার ফুডস নামের একটি সংস্থা। এই সংস্থার বিজ্ঞানীরা কার্বন ডাই-অক্সাইড , জল এবং বিদ্যুতের তৈরি নতুন প্রোটিন পাউডার সোলিন (solien) বাজারে আনার পরিকল্পনা করছে। জানা যাচ্ছে, ময়দার মতো দেখতে এটি একটি উচ্চ প্রোটিন। যার উপাদান হিসাবে রয়েছে ৫০ শতাংশ প্রোটিন, ৫ – ১০ শতাংশ ফ্যাট এবং ২০ – ২৫ শতাংশ কার্বস। ২০২১ সালেই বাজারে আসতে চলেছে এই খাবার।

এটি প্রথমে প্রোটিন শেক এবং দইয়ের মতো পন্যের সাথে বিক্রি হবে। সোলিনের উত্পাদন প্রক্রিয়াটি কার্বন নিরপেক্ষ এবং স্কেলাবিলিটির সম্ভাবনা সীমাহীন বলে মনে হচ্ছে। কার্বন-ক্যাপচার প্রযুক্তি ব্যবহার করে বায়ু থেকে কার্বন ডাই-অক্সাইড বের করে সোলেইনকে তৈরি করা হচ্ছে। তারপরে এটি জল, পুষ্টি এবং ভিটামিনের সাথে মিশ্রিত করা হচ্ছে।

সংস্থাটি দাবি করে যে এই প্রোটিন “কৃষি সীমাবদ্ধতা থেকে মুক্ত”। পাশাপাশি তারা বলেন এই খাদ্যের উৎপাদন আবাদযোগ্য জমি, জল (অর্থাত্ বৃষ্টি) বা অনুকূল আবহাওয়ার উপর নির্ভর করে না।সংস্থাটি ইতিমধ্যে ইউরোপীয় মহাকাশ সংস্থার সাথে এই খাবারের উৎপাদন শুরু করে দিয়েছে বলে জানা যাচ্ছে।

বলা বাহুল্য, যদি সফল ভাবে এই খাদ্য বাজারে আসে তাহলে বাতাসে বর্ধিত কার্বন ডাই-অক্সাইড এর পরিমানকে বেশ কিছুটা কমানো যাবে। একই সাথে এই মুহুর্তে বিশ্বের নানান প্রান্তে যে হাজার হাজার মানুষ খাদ্যের অভাবে অপুষ্টিতে ভুগছে তাদের মুখেও খাবার তুলে দেওয়া সম্ভব হতে পারে।

 

Back to top button