টাইমলাইনবিনোদন

চ‍্যারিটি করে সবাইকে বোকা বানাচ্ছেন সোনু, ট্রোলের মুখে সপাটে জবাব অভিনেতার

বাংলাহান্ট ডেস্ক: লকডাউনে (lockdown) দেশের মানুষের ‘সুপারম‍্যান’ বনে গিয়েছেন সোনু সূদ (sonu sood)। কিন্তু প্রশংসার পাশাপাশি এখনো সমালোচনা সহ‍্য করতে হচ্ছে তাঁকে। বেশ কিছুদিন ধরেই সোশ‍্যাল মিডিয়ায় ট্রোল (troll) শুরু হয়েছে সোনুকে নিয়ে। মার্চে লকডাউনের শুরু থেকে চ‍্যারিটি করছেন সোনু। মানুষকে এমনটাই বিশ্বাস করিয়ে বোকা বানাতে চাইছেন তিনি। এভাবেই প্রচার করা হচ্ছে অভিনেতার বিরুদ্ধে।

তবে এইসব অনলাইন ট্রোলের কারন কি তা জানা যায়নি। তবে এসব তেমন গায়ে মাখেননি সোনু। বরং এই প্রচার তিনি বেশ হালকা ভাবেই নিয়েছেন। অভিনেতার কথায়, “আমার কাছে ৭,০৩,২৪৬ জনের ডেটাবেস রয়েছে। এদের সকলকে আমি সাহায‍্য করেছি। তাদের ঠিকানা, আধার নম্বর ও ফোন নম্বর রয়েছে। আমি বড়াই করতে চাই না, কিন্তু আমার কাছে রয়েছে।”


অভিনেতা আরও বলেন, ট্রোল না করে ভাল কিছু করলে সবার ভাল হবে। গত অগস্ট মাসে সোনুর কাছে সাহায‍্য চেয়ে এক ব‍্যক্তি টুইট করেন। তিনি লেখেন, ‘স‍্যর আমার বাবা অনেকদিন ধরে অসুস্থ। জানুয়ারিতে ওনার অপারেশন হয়েছিল। মার্চ মাসে ডান পায়ের পাতায় গ‍্যাংগ্রিন হয়ে যায় তাঁর। ওনার চিকিৎসার জন‍্য এখনও পর্যন্ত ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা খরচ করেছি। ব‍্যাঙ্ক থেকেও লোন নিয়েছি। স‍্যর আমরা গরীব মানুষ, আমাদের সাহায‍্য করুন।’

গত ১১ সেপ্টেম্বর সোনু এই টুইটের উত্তরে সরাসরি সুখবর দিয়ে লেখেন, ‘শুভেচ্ছা রইল। আপনার বাবার সার্জারি সফল হয়েছে। আমার আজকের দিনের শুরুটা দারুন হল।’


লকডাউনে পরিযায়ী শ্রমিক ও দরিদ্র মানুষদের জন‍্য ‘সুপারম‍্যান’এর অবতারে হাজির হয়েছিলেন সোনু সূদ। এই অভিনেতার যেন সম্পূর্ণ নতুন এক রুপের সঙ্গে পরিচয় ঘটেছে লকডাউনের সময়। অক্লান্ত পরিশ্রমে যারাই সাহায‍্য চেয়েছেন তাদের জন‍্য ছুটে গিয়েছেন সোনু।

লকডাউন শেষ হয়ে গেলেও কাজ শেষ হয়নি সোনুর। এখনও প্রতিনিয়ত সাহায‍্যের প্রার্থনায় সাড়া দিয়ে হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন তিনি। মানুষ ধন‍্য ধন‍্য করছেন অভিনেতাকে।

Back to top button