টাইমলাইনবিনোদন

চার মাসের শিশুর অস্ত্রোপচারের জন‍্য দরকার ৭ লক্ষ টাকা, অসহায় বাবার সাহায‍্যে এগিয়ে এলেন সোনু সূদ

বাংলাহান্ট ডেস্ক: লকডাউনে (lockdown) পরিযায়ী শ্রমিক ও দরিদ্র মানুষদের জন‍্য ‘সুপারম‍্যান’এর অবতারে হাজির হয়েছিলেন সোনু সূদ (sonu sood)। বলিউডের পরিচিত এই অভিনেতার যেন সম্পূর্ণ নতুন এক রুপের সঙ্গে পরিচয় ঘটেছে লকডাউনের সময়। অক্লান্ত পরিশ্রমে যারাই সাহায‍্য চেয়েছেন তাদের জন‍্য ছুটে গিয়েছেন সোনু।

লকডাউন শেষ হয়ে গেলেও কাজ শেষ হয়নি সোনুর। এখনও প্রতিনিয়ত সাহায‍্যের প্রার্থনায় সাড়া দিয়ে হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন তিনি। পড়ুয়াদের পড়াশোনার সুযোগ সুবিধা, অসহায় রোগীর সাহায‍্য সব কাজেই এগিয়ে আসছেন সোনু। মানুষ ধন‍্য ধন‍্য করছেন অভিনেতাকে।


এবার ফের নিজের মহত্ব দিয়ে মানুষের মন জয় করে নিয়েছেন সোনু। টাকার অভাবে চার মাসের অসুস্থ ছেলেকে নিয়ে বিপদে পড়েছিলেন এক ব‍্যক্তি। অভিনেতা নিজেই ওই শিশুর অস্ত্রোপচারের বন্দোবস্ত করে দেন।

চার মাস বয়সী অদ্বৈত শৌর্য তেলেঙ্গানার বাসিন্দা। তার হার্টের সমস‍্যা দেখা দেওয়ায় তাকে হাসপাতালে নিয়ে যান তার বাবা। চিকিৎসকরা জানান, অস্ত্রোপচার করতে হবে ছোট্ট শৌর্যের যার জন‍্য দরকার ৭ লক্ষ টাকা।

অদ্বৈতের বাবা কাজ করেন এক কুরিয়ার কোম্পানিতে। এই পরিমাণ টাকা জোগাড় করা তাঁর পক্ষে সম্ভব নয়। গ্রামের বাসিন্দাদের সহযোগিতায় জোগাড় হয় ৪০ হাজার টাকা। তাদের পরামর্শেই সোশ‍্যাল মিডিয়ায় ছেলের জন‍্য সোনু সূদের কাছে সাহায‍্য চান ওই ব‍্যক্তি।

টুইটটি দেখেই ব‍্যবস্থা নেন অভিনেতা। আজ, বৃহস্পতিবার হায়দ্রাবাদের এক হাসপাতালে অদ্বৈতের অস্ত্রোপচার হয়। সব খরচ বহন করেন সোনু নিজে। শুধু অদ্বৈত নয়, অন্ধ্রপ্রদেশের আরেক ২ মাসের শিশুর অস্ত্রোপচারের ব‍্যবস্থাও করেছেন সোনু। আগামী ১৯ নভেম্বর তার অস্ত্রোপচারের তারিখ।

 

সম্প্রতি পরোপকারী কাজের জন‍্য ডিপার্টমেন্ট অফ প্ল‍্যানিং অফ দ‍্য গভর্নমেন্ট অফ পাঞ্জাবের সম্মানীয় স্পেশাল হিউম‍্যানিটারিয়ান অ্যাকশন অ্যাওয়ার্ডে সম্মানীত হন সোনু সূদ। এক ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে এই পুরস্কার দেওয়া হয় অভিনেতাকে।

করোনা পরিস্থিতিতে নিঃস্বার্থ ভাবে লক্ষ লক্ষ আটকে পড়া পরিযায়ী শ্রমিকদের উদ্ধার করে তাদের জন‍্য বাস, ট্রেনের ব‍্যবস্থা করা, তাদের খাবার বন্দেবস্ত করা, এছাড়া তাদের জন‍্য কাজের ব‍্যবস্থা করে দেওয়া, এসবের জন‍্যই এই বিশেষ সম্মান জানানো হয় সোনুকে।

Back to top button