টাইমলাইনবিনোদন

ছেড়েছেন পঞ্জাবের ‘স্টেট আইকন’ পদ, কংগ্রেসে বোনের হয়ে প্রচার করা নিয়ে মুখ খুললেন সোনু সূদ

বাংলাহান্ট ডেস্ক: তিনি ‘গরিবের মসিহা’। দীর্ঘ করোনা পরিস্থিতিতে বহু মানুষের জীবন বদলে দিয়েছেন তিনি। বলিউডের খলনায়ক হয়েও দেশবাসীর কাছে নায়ক হয়ে উঠেছেন সোনু সূদ (sonu sood)। এই সফরে অনেক বার বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে তাঁর নাম জড়িয়েছে। শোনা গিয়েছে, অমুক রাজনৈতিক দলে যোগ দেবেন তিনি। তমুক নেতার সঙ্গে সাক্ষাতের দরুন রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার জল্পনা অনেক শোনা গিয়েছে। কিন্তু রাজনীতি থেকে দূরেই থেকেছেন সোনু।

তবে নিজের পরিবারের সদস‍্যদের বারণ করেননি অভিনেতা। কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন তাঁর বোন মালবিকা সূদ (malvika sood)। আসন্ন পঞ্জাব বিধানসভা নির্বাচনে ভোটেও দাঁড়াচ্ছেন তিনি। বিষয়টা নিয়ে সম্প্রতি সংবাদ মাধ‍্যমের মুখোমুখি হয়ে সোনু জানান, বোন যে সাহসটা দেখিয়েছে সে জন‍্য তিনি গর্বিত।


সোনু বলেন, “ও গত কয়েক বছর ধরে এখানে রয়েছে এবং সমস‍্যাগুলো সম্পর্কে ওয়াকিবহাল। আমি খুশি যে ও মানুষের সংস্পর্শে থাকতে পারবে আর সরাসরি তাদের সাহায‍্য করতে পারবে।” কিন্তু সোনু সাফ জানিয়ে দেন, এটা মালবিকার সফর। তাঁর রাজনীতির সঙ্গে কোনো যোগসূত্র নেই। বোনের জন‍্য প্রচারও করবেন না তিনি। নিজের যে কাজ এতদিন ধরে সোনু করে এসেছেন সেটাই করবেন। ভবিষ‍্যতে কখনোই রাজনৈতিক বিষয়ে তিনি জড়াবেন না বলেই জানিয়ে দেন অভিনেতা।

কিছুদিন আগেই পঞ্জাবের ‘স্টেট আইকন’ পদ থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন সোনু। নির্বাচন কমিশনের তরফে গত বছর সোনুকে ‘স্টেট আইকন’ হিসাবে নির্বাচন করা হয়। পঞ্জাবের মোগা জেলাতেই জন্ম অভিনেতার। কিন্তু সম্প্রতি সোনু টুইটে জানান, তিনি স্বেচ্ছায় পঞ্জাবের স্টেট আইকনের পদ ছাড়ছেন। তাঁর পরিবারের সদস‍্য পঞ্জাবের বিধানসভা ভোটে লড়াই করবেন। তাই তাঁর ও নির্বাচন কমিশনের যৌথ সিদ্ধান্তে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ‍্য, গত বছর নভেম্বরেই সোনু জানিয়েছিলেন তাঁর বোন মালবিকা সোনু পঞ্জাব বিধানসভা ভোটে লড়বেন। সম্প্রতি পঞ্জাবের মুখ‍্যমন্ত্রী চরণজিৎ সিং চান্নির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন সোনু। তার পরপরই এই ঘোষনা করেন তিনি।

Related Articles

Back to top button