fbpx
টাইমলাইনভারত

আরে কাগজ চেয়েছে কে ? বাংলা সিনেমা জগৎ নষ্ট করেছেন, এবার বাংলা নষ্ট করবেন ! বুদ্ধিজীবিদের একহাত নিলেন বিজেপি সংসদ সৌমিত্র খান

কাগজ আমরা দেখবো না, বলেছেন বাংলার বুদ্ধিজীবীরা

CAA এর বিরুদ্ধে বুদ্ধিজীবী বর্গ আরো একবার মাঠে নেমে পড়েছে। রামচন্দ্র গুহ, অনুরাগ কাশ্যপের মতো তথাকথিত বুদ্ধিজীবীরা CAA ও NRC নিয়ে সরকারের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন। তবে এই বুদ্ধিজীবীরা কেন কাশ্মীরে হিন্দু বিতাড়নের সময় চুপ ছিলেন তাই নিয়েও পাল্টা প্রশ্ন তুলেছে বিজেপি সমর্থকরা। শরনার্থীরা স্থান পেলে কেন বুদ্ধিজীবীদের কষ্ট হয় তা নিয়েও প্রশ্নঃ তুলেছেন বিজেপি সমর্থকরা।

এ সমস্ত কিছুর মধ্যে পশ্চিমবঙ্গের টলিউড জগতের একাংশ সরকারের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন। টলিউড জগতের বিশিষ্ট বর্গরা CAA-NRC এর প্রতিবাদ করার জন্য কবিতাও তৈরি করে ফেলেছেন। কবিতার নাম- কাগজ আমরা দেখাবো না। কবিতায় মূলত বলা হয়েছে শাসক আসবে যাবে কিন্তু আমরা কাজগ দেখাবো না। প্রতিবাদীদের উপর লাঠিচার্জ করলেও কাগজ আমরা দেখাবো না।

এখন এই বুদ্ধিজীবীদের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। বিষ্ণুপুর থেকে সাংসদ সৌমিত্র খাঁ তথাকথিত বুদ্ধিজীবী সব্যসাচী চক্রবর্তী, স্বস্তিকা, রুপম ইসলামদের কাজগ দেখাবো না কবিতার জবাব দিয়েছেন। সৌমিত্র খাঁ বেশ সুন্দর ভঙ্গিতে বুদ্ধিজীবীদের জবাব দিয়েছেন। উনি বলেছেন সব্যসাচী চক্রবর্তী আপনার নিশ্চয় জন্মের সময় বার্থ সার্টিফিকেট ছিল না, আপনার কাছের কেউ মারা গেলে আপনি নিশ্চয় আপনি ডেথ সার্টিফিকেট নেননি।

স্বস্তিকাকে আক্রমন করে সৌমিত্র খাঁ বলেন, স্বস্তিকা ম্যাডাম যখন সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, লন্ডন ঘুরতে যান তখন নিশ্চয় কাগজ নিয়ে যান না, কারণ আপনি তো স্বস্তিকা। রুপম ইসলামকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সৌমিত্র খাঁ বলেন, মশাই আপনি আমাদের মসজিদে আমাদের স্বামী বিবেকানন্দ বা রামকৃষ্ণদেবের ছবি লাগিয়ে ১২ জানুয়ারি পালন করে দেখান। বুদ্ধিজীবীদের ধিক্কার জানিয়ে সৌমিত্র খাঁ বলেন, আপনাদের কি শরীরের চামড়াটাও উঠে গেছে? লাজ লজ্জাহীনের মতো কথা বলছেন! বুদ্ধিজীবীদের কড়া ভাষায় আক্রমণ করে বিজেপি সাংসদ বলেন, আপনারা ধান্দাবাজ, আপনারই আগে কাগজ নিয়ে দৌড়াবেন।

সৌমিত্র খাঁ বলেছেন, “আধার কার্ড করাতে কোনো কষ্ট হয়নি, কষ্ট আপনাদের হয়েছে। কারণ আপনাদের মাসিক টাকাটা ঢুকবে না। আগে টাকা সিপিএম দিত এখন মমতা ব্যানার্জী দেওয়ার চেষ্টা করছে। আপনারা একবার আমেরিকা ঘুরে আসুন, তখন তো গ্রীন কার্ড বের করছেন। আর এখানে বলেছেন কাগজ আমরা দেখাবো না। CAA হচ্ছে এবং CAA হবে। বাংলাকে এই করেই আপনারা নষ্ট করেছেন। আপনারা সিনেমা জগৎ টাও শেষ করেছেন আর বাঙালিদের ভবিষ্যতও শেষ করছেন। নমস্কার, ভালো থাকবেন। কাগজ আপনাদের থেকে কেও চাইছে না। যারা বাংলাদেশ, পাকিস্তান , আফগানিস্তান থেকে আসবে তাদের থেকে কি কেও কাজগ চাইবে না! নিশ্চতভাবে চাইবো।”

Close
Close