fbpx
টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

রাজ্যের পঞ্চায়েতের অস্থায়ী কর্মীদের জন্য দারুণ খবর! কর্মীদের স্থায়ীকরণের সিদ্ধান্ত নিচ্ছে রাজ্য সরকার

বাংলা হান্ট ডেস্ক : রাজ্যের বিভিন্ন সরকারি পদে যে সমস্ত অস্থায়ী কর্মচারী রয়েছে তাঁদের স্থায়ী কর্মীর উদ্দেশ্যে অনেকদিন আগে থেকেই লক্ষ্যমাত্রা স্থির রেখেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। লোকসভা নির্বাচনের পর যে ভাবে রাজ্য সরকারের আশানুরূপ ফল হয়নি তাই পুরসভা নির্বাচন এবং বিধানসভা নির্বাচনকে লক্ষ্য রেখেই রাজ্যের কর্মসংস্থান বিষয়টি যেমন জোর দেওয়া হয়েছে ঠিক তেমনই বিভিন্ন অস্থায়ী কর্মীদের স্থায়ীকরণের বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

সেই মতো এ বার গ্রাম পঞ্চায়েতের অস্থায়ী কর্মীদের জন্য শীঘ্রই ব্যবস্থা নিতে চলেছে রাজ্য সরকার। তাই রাজ্যের বিভিন্ন গ্রাম পঞ্চায়েত মিলিয়ে এই সমস্ত অস্থায়ী কর্মী রয়েছেন তাঁদের স্থায়ীকরণ করে দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে রাজ্য সরকার। যদিও তার জন্য অস্থায়ী পদে কর্মরতদের সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছে। এখনও অবধি গ্রাম পঞ্চায়েত লেভেলের সহায়ক নির্মাণ সহায়ক এক্সিকিউটিভ অ্যাসিস্ট্যান্ট পদে যে 15 হাজার অস্থায়ী কর্মীদের আগামী অর্থবর্ষ থেকে প্রবেশনারি পিরিয়ডে রাখার কথা জানানো হয়েছে রাজ্য সরকারি তরফে

তাই যদি কোনও অস্থায়ী কর্মী তাদের কর্মদক্ষতার পরিচয় দিতে পারেন সে ক্ষেত্রে কাজের নিরিখে স্থায়ীকরণের পরীক্ষায় বসতে পারবেন সেই কর্মচারী আর সে ভাবেই পরীক্ষার মাধ্যমেই অস্থায়ী থেকে স্থায়ী পদে স্থানান্তরিত হওয়ার সুযোগ থাকবে। তবে পরীক্ষায় পাশ না করলেও কিন্তু আরও এক বছরের প্রবেশনারি পিরিয়ডে থাকার সুযোগ পাবেন ওই সমস্ত অস্থায়ী কর্মীরা।

তাই আগামী অর্থবর্ষ থেকেই রাজ্যের পঞ্চায়েতের অস্থায়ী কর্মচারীদের জন্য দারুণ খবর আসতে চলেছে। প্রসঙ্গত রাজ্যের বিভিন্ন পঞ্চায়েতের বিভিন্ন সময় অস্থায়ী পদে কর্মচারীদের নিয়োগ করা হয়ে থাকে। সময় পেরিয়ে গেলেও তাঁদের স্থায়ী কর্মীর কোনও সুযোগ থাকে না তবে এ বার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার সেই সমস্ত অস্থায়ী পদের কর্মচারীদের জন্য সুখবর নিয়ে এসেছে।

Back to top button
Close