টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

প্রচন্ড ঝড়ের গতিতে বিদ্যুতের তারে ঘর পুড়ে সর্বস্বান্ত দিনমজুর

 

বাবলু প্রামাণিক, দক্ষিণ ২৪ পরগনা: বাড়ির পাশ থেকে যাওয়া বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে বাড়িতে আগুন লাগায় সর্বস্ব হারালো দিনমজুর ব্যাক্তি বাড়ি । ঘটনাটি ঘটে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার মথুরাপুর ২ নম্বর ব্লকের নন্দকুমার পুর গ্রাম পঞ্চায়েতের মোহাম্মদ নগর গ্রামীণ এলাকায় স্থানীয় সূত্রে জানা যায় গৌতম হুদাই স্ত্রী দুই ছেলে বর্তমান। তারা পরিচালকের কাজ করে দিল্লিতে বিগত সাত বছর ধরে দিল্লিতে রয়েছে। সেখানে খাটাখাটনি করে নিজের গ্রামীণ এলাকায় ঘর ধান জমি ও ছিল কিছুটা যা দেখাশোনা করে তারই ছোট ভাই। ঝড়ের দাপটে আসছে দেখে ছোট ভাই লোকজন নিয়ে ধান তুলে ঘরের পাশেই গাধা দিয়ে ছিল গতকাল।

 

কিন্তু আজ হঠাৎ বাড়ির পাশ দিয়ে যাওয়া বিদ্যুতের তার প্রচন্ড ঝড়ের গতিতে ছিঁড়ে ঘরের উপরে উপরে পড়ে এর ফলে ঘরটি দাও দাও করে জ্বলতে থাকে ।স্থানীয় লোকজন ছুটে এসে জল দিয়ে নেভাবার চেষ্টা করলেও হাওয়ার গতি জোর থাকায় নিমেষের মধ্যে ঘরে থাকা টিভি ,ফ্রিজ ,আসবা পত্র জলের মেশিন ধানের গাদা পুড়ে ভস্মীভূত হয়ে যায়। খবর যায় রায়দিঘি থানা রায়দিঘি থানা থেকে বিশাল পুলিশবাহিনী তদন্ত করেন। গৌতম ও তার স্ত্রী এবং এক ছেলে দিল্লিতে প্রায় সাত বছর রয়েছে।

দিল্লিতে পরিচারিকার কাজ করে যেটুকু টাকা পেয়েছিলেন আশা ছিল বাড়িতে এসে পাকা ঘর করবেন, বর্তমানে ছোট ছেলে অষ্টম শ্রেণীর ছাত্র নরেন্দ্র পুর স্কুলের হোস্টেলে থেকে পড়াশোনা করে। বাড়ি আসার পর কাকার বাড়িতেই থাকে। কাকার কাছে খবর পেয়ে আজ বাড়িতে আসে। বাড়িতে এসে বাড়ির দৃশ্য দেখে স্তম্ভিত হয়ে যায়। যে বিদ্যুতের জন্য মানুষের এত চাহিদা, সেই বিদ্যুৎ তাদেরকে সর্বশান্ত করে দিল।

এই খবর পেয়ে রায়দিঘি থানার প্রশাসনসহ নন্দকুমার পুর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান জ্যোৎস্না পাত্র, উপপ্রধান কানাই গিরি, পঞ্চায়েত সদস্যা লজ্জাবতী খাঁড়া, বিশিষ্ট সমাজসেবী মনোরঞ্জন পাত্র দেখতে আসেন এবং গৌতম হুদা এর ছেলে কে সান্তনা দেন এবং অঞ্চল এর পক্ষ থেকে জাতীয় সাহায্য করা যায় সে ব্যাপারে আশ্বাস দেন বর্তমানে খবর গিয়েছে দিল্লিতে দিল্লি থেকে গৌতম হুদাই ও স্ত্রী ছেলে আসার জন্য রওনা দিয়েছে বলে জানা যায়।

Back to top button
Close