টাইমলাইনআন্তর্জাতিক

হঠাৎ ছাত্রীর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ঢোকে ১৮ কোটি টাকা, সব খরচও করে ফেলে সে! তারপরই ঘটল

বাংলাহান্ট ডেস্ক : ব্যাঙ্কের (Bank) ভুলের কারণে কোটি টাকার কেনাকাটা করার সুযোগ পেল এক যুবতী। তিনি তার অ্যাকাউন্ট থেকে 18 কোটি টাকারও বেশি খরচ করেছেন। যদিও তার অ্যাকাউন্টে এত টাকা ছিল না। আসলে, ব্যাঙ্ক ভুল করে মেয়েটিকে আনলিমিটেড ওভারড্রাফ্ট দিয়েছিল।

ওভারড্রাফ্ট এমন একটি সুবিধা যার মাধ্যমে আপনি আপনার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে টাকা না থাকলেও টাকা তুলতে পারবেন। এটি এক ধরনের স্বল্পমেয়াদী ঋণ যা একটি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে পরিশোধ করতে হয়। অস্ট্রেলিয়ার ওয়েস্টপ্যাক ব্যাঙ্ক ভুলবশত ক্রিস্টিন জিয়াক্সিন নামে এক ছাত্রীকে এই সীমাহীন ওভারড্রাফ্ট সুবিধা দিয়েছিল।

জানা গিয়েছে, মালয়েশিয়ার বাসিন্দা 21 বছর বয়সী ক্রিস্টিন মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং পড়তে অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে গিয়েছিলেন। ওয়েস্টপ্যাক ব্যাঙ্ক ভুলবশত ক্রিস্টিনের অ্যাকাউন্টে সীমাহীন ওভারড্রাফ্ট সুবিধার অনুমতি দিয়েছিল।

ক্রিস্টিন বিষয়টি জানতে পেরে ব্যাঙ্ক-কে না জানিয়ে কেনাকাটায় টাকা উড়িয়ে দিতে শুরু করেন। ক্রিস্টিন গয়না, পার্টি, ভ্রমণ, ডিজাইনার হ্যান্ডব্যাগে কোটি কোটি টাকা খরচ করেন। তিনি রীতিমত বিলাসবহুল জীবনযাপন শুরু করেন। শুধু তাই নয়, সেই টাকায় একটি দামি অ্যাপার্টমেন্টও কিনে ফেলেন ক্রিস্টিন। এর পাশাপাশি তার অন্য অ্যাকাউন্টে প্রায় আড়াই লাখ টাকা স্থানান্তরও করেন।

এই ঘটনা সামনে এলে ক্রিস্টিনকে গ্রেপ্তার করা হয়। ক্রিস্টিনের তরফে বলা হয় যে,” আমি ভেবেছিলাম আমার বাবা-মা ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে অর্থ স্থানান্তর করেছেন।” একই সময়ে, তার আইনজীবী যুক্তি দিয়েছিলেন যে ক্রিস্টিন প্রতারণার জন্য দোষী নন কারণ এক্ষেত্রে ব্যাঙ্ক ভুল করেছে। অন্যদিকে, ক্রিস্টিনের বয়ফ্রেন্ড ভিনসেন্ট কিং দাবি করেছেন যে ক্রিস্টিনের কাছে যে বিপুল পরিমাণ অর্থ রয়েছে তা তিনিও জানতেন না। অবশেষে বিষয়টি আদালতে পৌঁছালে ক্রিস্টিনের বিরুদ্ধে সব অভিযোগ খারিজ হয়ে যায়।

Related Articles