টাইমলাইনখেলাঅন্যান্য খেলাধুলা

জন্ম কৃষক পরিবারে, ছোট থেকে আক্রান্ত পোলিওতে, আজ কমনওয়েলথে রেকর্ড গড়ে দেশকে জেতালেন সোনা

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক: কমনওয়েলথ গেমসে ভারত নিজেদের ষষ্ঠ স্বর্ণপদক জয় করে নিয়েছে কাল রাতে। এবারের স্বর্ণপদক এসেছে প্যারা পাওয়ারলিফটার সুধীরের হাত ধরে। ২০১৮ সালে প্যারা এশিয়ান গেমসে ব্রোঞ্জ পদক পাওয়ার সুধীর এই চার বছরে আরো উন্নতি করেছেন। কাল প্রথম চেষ্টায় তিনি ২০৮ কেজি এবং দ্বিতীয় চেষ্টায় ২১২ কেজি ওজন তুলে তিনি ১৩৪.৫ পয়েন্ট নিয়ে কমনওয়েলথ গেমসে তার নিজস্ব ক্যাটাগরিতে রেকর্ড সৃষ্টি করেছেন। সুধীর নিজের তৃতীয় চেষ্টায় ২১৭ কেজি ওজন তুলতে গিয়েছিলেন যা তার ব্যক্তিগতভাবে সেরা অর্জন হতে পারতো। কিন্তু তাতে তিনি সফল হননি। যদিও তাতে কিছু যায় আসে না কারণ সোনা জয় ততক্ষণে নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল।

হরিয়ানার সোনিপতে এক কৃষক পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন সুধীর। মাত্র ৪ বছর বয়সে প্রবল জ্বর থাকাকালীন তিনি পোলিও আক্রান্ত হন। কিন্তু তার জীবনের সেই ঘটনা তার খেলাধুলার প্রতি আগ্রহ জন্মানোর হাত থেকে তাকে আটকাতে পারেনি। এভাবেই আস্তে আস্তে একটু বড় হয়ে উঠে ভারোত্তোলন এর সঙ্গে পরিচিত হন তিনি।

২০১৩ থেকে ক্রীড়াবিদ হিসেবে তার কেরিয়ার শুরু হয়। ২০১৬ তে তিনি জাতীয় পর্যায়ে স্বর্ণ পদক জেতেন। ২০১৮ সালে তিনি নিজের প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে নামেন এশিয়ান প্যারা গেমসে এবং সেখানে তিনি ব্রোঞ্জ পদক জিতেছিলেন। এই মুহূর্তে সুধীর হরিয়ানা সরকারের হয়ে একজন ভারোত্তোলন এর প্রশিক্ষক হিসেবে কাজ করছেন। তার সাফল্যের কারণে তাকে “স্ট্রং ম্যান অফ ইন্ডিয়া” উপাধি দেওয়া হয়েছে।

সুধীরের সোনা ছাড়াও কাল আর একটি পদক জিতেছে ভারত। মুরলি শ্রীশঙ্কর চলতি কমনওয়েলথ গেমসে পুরুষদের লং জাম্পে ৮.০৮ মিটার লাফিয়ে একটি রৌপ্য পদক জিতে নিয়েছেন। নিজের পঞ্চম প্রচেষ্টায় এই লাফ দিয়ে তিনি এই কৃতিত্ব অর্জন করেন। ফাইনালের বেশিরভাগ সময় তিনি যদিও পদক জেতার জায়গায় ছিলেন না কিন্তু পঞ্চম জাম্পে তিনি খেলা ঘুরিয়ে দেন। এটি ছিল চলতি কমনওয়েলথে ভারতের ২০তম পদক।

Related Articles

Back to top button