টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

সব্যসাচীকে দলে ফেরাতে নারাজ সুজিত, ঘনিষ্ঠ মহলে ক্ষোভ উগরে দিলেন বিধাননগরের বিধায়ক

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ মুকুল রায়ের পর এবার যদি সব্যসাচী দত্তকে (Sabyasachi Dutta) ফিরিয়ে নেওয়া হয়, তাহলে তাঁর আপত্তি আছে বলে ঘনিষ্ঠ মহলে জানালেন বিধাননগরের বিধায়ক সুজিত বসু (Sujit Bose)। তৃণমূলে থাকাকালীনই সুজিত বসু বনাম সব্যসাচী দত্তের যে দ্বন্ধটা ছিল, তা সকলেরই জানা। আর সব্যসাচী দত্ত দলবদল করতেই, সেই দ্বন্ধ চরমে পৌঁছায়।

একুশের নির্বাচনের পূর্বে দলে দলে যেমন তৃণমূল ছেড়ে বিজেপির খাতায় নাম লিখিয়েছিলেন হেভিওয়েট নেতৃত্বরা, তেমনই তৃণমূল ক্ষমতায় ফিরতেই আবারও ঘরে ফেরার আশায় গেরুয়া শিবিরের সঙ্গে সকল সম্পর্ক ত্যাগ করছে সেই দলবদলুরাই। প্রথম দিকে বেশ কয়েকজন দলবদলু নেতৃত্বের ঘরে ফেরার আর্জি জানানোর পর এবার সপুত্র তৃণমূলে ফিরলেন মুকুল রায়। শুক্রবারই আনুষ্ঠানিক ভাবে মুকুল রায় এবং তাঁর পুত্র শুভ্রাংশু রায়কে দলে ফিরিয়ে নেয় তৃণমূল।

তবে এখন রাজনৈতিক মহলে প্রশ্ন উঠছে মুকুল রায়ের পর কি এবার ঘরে ফিরবেন সব্যসাচী দত্ত? তবে সব্যসাচী দত্তকে ফিরিয়ে নিলে তাতে ঘোরতর আপত্তি রয়েছে সুজিত বসুর। ঘনিষ্ঠ মহলে ক্ষোভ উগরে দিলেন সুজিত বসু। সব্যসাচীর বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ রয়েছে তাঁর।

সুজিত বসু জানিয়েছেন, ‘বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর থেকে তৃণমূলের সবরকম ক্ষতি করার চেষ্টা করেছিলেন সব্যসাচী দত্ত। অশুভ শক্তির সঙ্গে মিলে গিয়ে মমতা ব্যানার্জী এবং অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে কুৎসাও রটিয়েছেন। যার কারণে তাঁকে দলে ফেরানো ঠিক হবে না’।

একুশের বিধানসভা নির্বাচনের পূর্বে সুজিত বসুর বিরুদ্ধে একাধিকবার তোপ দাগতেও দেখা গিয়েছিল সব্যসাচী দত্তকে। তবে নির্বাচনের পরবর্তীতে তাঁর গলাতেও শোনা গিয়েছে বেসুরো সুর। মুকুল রায় ঘরে ফেরার পর এবার সব্যসাচী দত্তেরও ঘরে ফেরার প্রশ্ন উঠছে।

Related Articles

Back to top button