fbpx
আবহাওয়াটাইমলাইন

গ্রীষ্মের তাপমাত্রাতেই কমবে করোনার প্রকোপ, বলছে গবেষণা

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ আসতে চলেছে গরমের মরশুম, বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন বর্তমানে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাসের প্রকোপ অনেকটাই কমতে চলেছে। হংকং বিশ্ববিদ্যালয়ের প্যাথলজি বিভাগের অধ্যাপক ডঃ জন নিকোলস জানাচ্ছেন, করোনা ভাইরাস পছন্দ করে না এমন তিনটি জিনিস রয়েছে: সূর্যের আলো, তাপমাত্রা এবং আর্দ্রতা।

নিকোলস আরো বলেন, “সূর্যের আলো ভাইরাসের অর্ধেকের মধ্যে বৃদ্ধি করার ক্ষমতা হ্রাস করবে, তাই অর্ধ-জীবন হবে 2.5 মিনিট,…. ভাইরাসগুলি হত্যার ক্ষেত্রে সূর্যালোক সত্যিই ভাল,”। ডয়চে ভেল জার্মানি সেন্টার ফর এক্সপেরিমেন্টাল অ্যান্ড ক্লিনিকাল ইনফেকশন রিসার্চের ভাইরাসবিদ টমাস পাইটসমানও জানিয়েছিলেন, করোনাভাইরাস খুব বেশি তাপ-প্রতিরোধী নয়, যার অর্থ তাপমাত্রা বৃদ্ধির সাথে সাথে ভাইরাসটি দ্রুত ভেঙে যায়।

চিনের সঙ্গে সঙ্গে সারা বিশ্বেই ছড়িয়ে পড়েছে করোনা ভাইরাসের (Cororna Virus) আতঙ্ক। এমনকি ভারতেও এই মারণ ভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়েছেন মানুষ। চিনে এখনও পর্যন্ত ৩০০০ জনেরও বেশি মানুষ মারা গিয়েছেন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে। বহু মানুষ আক্রান্ত এই ভাইরাসে। মাস্ক ছাড়া বাড়ির বাইরে বেরই হচ্ছেন না মানুষ। চিনে অব্যাহত রয়েছে মৃত্যুমিছিল।জানুয়ারিতে কেরালায় করোনাভাইরাস ভারতে প্রবেশ করেছিল এবং একমাসেরও বেশি পরে, লক্ষ লক্ষ ভারতীয়ের তদন্তের আওতায় করোনা ভাইরাসের ৭০০ এর বেশি   নিশ্চিত ঘটনা দেখা গেছে।

আবহাওয়া বিদরা মনে করছেন, ২০২০ সালে মার্চ থেকে মে অবধি এই তিন মাসের তাপমাত্রা গড় স্বাভাবিক তাপমাত্রা থেকে ০.৫ থেকে ১ ডিগ্রী বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে উত্তরবঙ্গের জেলাগুলোতে। এর পাশাপাশি দক্ষিণবঙ্গের পশ্চিম দিকের বেশ কয়েকটি জেলায়ও গরম বাড়তে পারে। পুরুলিয়া (Purulia), বাঁকুড়া (Bankura), বীরভূম, পশ্চিম বর্ধমানের জেলাগুলিতে গরম পড়বে। আবার বেশকিছু জায়গায় যেমন হিমাচল প্রদেশ (Himachal Pradesh), উত্তরাখণ্ড, পশ্চিম রাজস্থান ও অরুণাচল প্রদেশে তাপমাত্রা স্বাভাবিকের ১ ডিগ্রির থেকেও বেশি বাড়বে। বলা বাহুল্য, গবেষনা যদি সঠিক হয় তবে ভারতে করোনা তেমন প্রভাব বিস্তার করতে পারবে না।

Back to top button
Close
Close