টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

চালু করতে হবে ‘এক দেশ, এক রেশন কার্ড” রাজ্যগুলিকে স্পষ্ট নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ গতবছর প্যানডেমিকের সময় যেকোনো জায়গায় পরিযায়ী শ্রমিকরা যাতে সরকারি রেশনের সুবিধা লাভ করতে পারেন তার জন্য “ওয়ান নেশন ওয়ান রেশন কার্ড ” প্রকল্পের কথা সামনে এনেছিল কেন্দ্র। পশ্চিমবঙ্গের মতো অনেকগুলি রাজ্যতেই এখনো ভিন্ন ভিন্ন ধরনের রেশন কার্ড রয়েছে। যার জেরে বাইরে থাকা কোনো পরিযায়ী শ্রমিক প্রয়োজনে অন্য রাজ্যে থাকাকালীন সেই কার্ড থেকে রেশন তুলতে পারেন না। শুক্রবার এই বিষয়ে রাজ্যকে স্পষ্ট নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছে, রাজ্যে যত দ্রুত সম্ভব এক রেশন কার্ড পরিষেবা চালু করতে হবে।

ইতিমধ্যেই এই প্রকল্পে যোগদান করেছে বেশ কিছু রাজ্য। যার মধ্যে রয়েছে, অন্ধ্র, তেলঙ্গানা, গুজারট, মহারাষ্ট্র, কেরল, মধ্যপ্রদেশ সহ আরো অনেকগুলি নাম। তবে আমাদের রাজ্যে এখনও সারা দেশের জন্য এক রেশন কার্ড চালু করা হয়নি। সেই কারণেই এবার সরকারকে স্পষ্ট নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। তবে কেন্দ্রের পরিসংখ্যান বলছে, আধার কার্ডের সংযুক্তিকরণ, এবং বায়োমেট্রিকের ক্ষেত্রে পশ্চিমবঙ্গ অনেকটাই এগিয়ে রয়েছে। এক রেশন কার্ড চালু করার জন্য যা ভীষন জরুরী। অন্যদিকে ইতিমধ্যেই রাজ্যের প্রায় ৯৬ শতাংশ রেশন দোকানে ই-পিওএস যন্ত্র বসে গিয়েছে। যার জেরে যেকোনো রেশন কার্ডের আসল মালিক মাল নিতে আসেন কিনা তা চিহ্নিত করা যায়। তাই এক রেশন কার্ড লাগু করতে তেমন কোনো সমস্যা হবার কথা নয়। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অবশ্য জানিয়েছেন, তিনি এখনো এ বিষয়ে নোটিশ হাতে পাননি। তাই নোটিশ দেখেই এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেবেন।

বাংলা/ West bengal

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত বছর এই ব্যবস্থা না থাকায় যথেষ্ট সমস্যায় পড়তে হয়েছিল অন্য রাজ্যে থাকা পরিযায়ী শ্রমিকদের।একদিকে যখন বন্ধ হয়ে গিয়েছে কাজ, অন্যদিকে শেষ ভরসা হিসেবে সরকারি সাহায্যটুকুও পাচ্ছিলেন না তারা। সেই কথা মাথায় রেখেই এবার এই বিষয়ে রাজ্যকে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দিল কেন্দ্র। সুপ্রিমকোর্টে এও জানিয়েছে এই রাজ্যের অনেক মানুষই বাইরে কাজ করে, তাই অতি দ্রুত ব্যবস্থা নিন। এখন শেষমেষ কবে এ রাজ্যে এক দেশ এক রেশন কার্ড প্রকল্প চালু হয়, সে দিকেই নজর থাকবে সকলের।

Related Articles

Back to top button