টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

মেয়াদ ফুরিয়ে এল মুকুল রায়ের? দু’সপ্তাহের সময় দিল সুপ্রিম কোর্ট

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ সোমবার সুপ্রিম কোর্ট আশা প্রকাশ করেছে যে পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভার স্পিকার কৃষ্ণনগর উত্তরের বিধায়ক মুকুল রায় যিনি বিজেপি ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন, তাঁর অযোগ্যতার বিষয়ে দুই সপ্তাহের মধ্যে সিদ্ধান্ত নেবেন। সেই সঙ্গে ফেব্রুয়ারির দ্বিতীয় সপ্তাহ পর্যন্ত মামলার শুনানি স্থগিত করা হয়েছে শীর্ষ আদালতের তরফ থেকে।

বিচারপতি এল নাগেশ্বর রাও এবং বিভি নাগারথনার বেঞ্চের সামনে স্পিকারের পক্ষ থেকে উপস্থিত হণ সিনিয়র আইনজীবী অভিষেক মনু সিংভি। তিনি আদালতকে ফেব্রুয়ারির তৃতীয় সপ্তাহে বিষয়টি শুনানির জন্য অনুরোধ করেছিলেন, এই মামলায় খুব কম সময়সীমা নির্ধারণ করা উপযুক্ত হবে না বলে মনে করেন তিনি। তবে আদালত ফেব্রুয়ারির দ্বিতীয় সপ্তাহ পর্যন্ত শুনানি স্থগিত করে বলেছে যে, আশা করা হচ্ছে ততদিনে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। বিচারকরা এটাও স্পষ্ট করে দেন যে, তাঁরা এটা আদেশ হিসেবে বলছেন না।

সুপ্রিম কোর্ট পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় এবং বিধানসভার সচিব এবং রিটার্নিং অফিসারের দায়ের করা দুটি পৃথক আবেদনের শুনানি করেছে সোমবার। এই আবেদনগুলিতে কলকাতা হাইকোর্টের সেই আদেশকে চ্যালেঞ্জ করা হয়েছিল, যেখানে বিধানসভার স্পিকারকে ৭ অক্টোবরের মধ্যে অযোগ্যতার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।

Mukul mamata abhishek

বলে দিই, একুশের নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা পর বিজেপি ছেড়ে আনুষ্ঠানিক ভাবে তৃণমূলে যোগ দিয়েছিলেন কৃষ্ণনগর উত্তরের বিধায়ক মুকুল রায়। এরপর থেকেই বিজেপি তাঁর বিধায়কপদ বাতিল করার জন্য উঠেপড়ে লেগেছে। যদিও, মুকুল রায়ের আইনজীবী দাবি করেছেন যে, মুকুলবাবু তৃণমূলে যোগ দেন নি, তিনি এখনও বিজেপিতেই আছেন। এখন আশা করা হচ্ছে যে, ফেব্রুয়ারি মাসেই এই নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

Related Articles

Back to top button