টাইমলাইনবিনোদন

মৃত‍্যুর আগের দিনই নতুন ছবির প্রস্তাব, ১৫ জুন ভিডিও কলের জন‍্যও সময় দিয়েছিলেন সুশান্ত!

বাংলাহান্ট ডেস্ক: সুশান্ত সিং রাজপুতের (sushant singh rajput) মৃত‍্যুর পর চার মাসেরও বেশি সময় কেটে গিয়েছে। এখনো তাঁর মৃত‍্যু তদন্ত যে তিমিরে সেই তিমিরেই রয়েছে। এখনো পর্যন্ত তদন্ত শেষ করে উঠতে পারেনি সিবিআই। এমনকি সুশান্তের মৃত‍্যু রহস‍্য নিয়ে আগে যে উত্তেজনা ছিল তাও অনেকাংশে স্তিমিত হয়ে গিয়েছে।

এরই মাঝে প্রকাশ‍্যে এক বিষ্ফোরক তথ‍্য। লকডাউনের মধ‍্যেই সুশান্তের হাতে এসে গিয়েছিল নতুন কাজ। ২৬/১১র মুম্বই হামলার উপর ভিত্তি করে একটি ছবি তৈরির পরিকল্পনা করেন পরিচালক নিখিল আডবানী। সেই ভয়াবহ সন্ত্রাসবাদী হামলায় জীবিত অবস্থায় ধরা পড়েছিল শুধুমাত্র একজনই সন্ত্রাসবাদী, আজমল আমির কাসভ।


কাসভ ধরা পড়ার পর প্রকাশ‍্যে এসেছিল তার জীবনের নানান তথ‍্য। কিভাবে সে সন্ত্রাসবাদে যোগ দিল তাও জানা গিয়েছিল সেই সময়। এই পুরো ঘটনাই উঠে আসত নিখিল আডবানীর ছবিতে। এই ছবির প্রধান চরিত্রে সুশান্তকে ভেবেছিলেন তিনি। এমনকি দুজনের মধ‍্যে কথাও হয়েছিল।

সুশান্তের মৃত‍্যুর ঠিক আগের দিন অর্থাৎ ১৩ জুন নিখিল আডবানী, ছবি নির্মাতা রমেশ তুরানি ও সুশান্তের দীর্ঘক্ষণ কনফারেন্স কলে কথা হয়। ১৫;জুন ভিডিও কলের জন‍্য সময়ও দেন প্রয়াত অভিনেতা। নিখিল আডবানীকে জেরায় এমনি তথ‍্য উঠে এসেছে। এমনকি সুশান্তের কল রেকর্ড থেকেও প্রমাণ হয়েছে এর সত‍্যতা।

এই খবর প্রকাশ‍্যে আসতেই ফের একবার চাঞ্চল‍্য সৃষ্টি হয়েছে। যদি সবকিছু শেষ করে দেওয়ারই পরিকল্পনা করে থাকেন সুশান্ত তাহলে পরে কেনই বা সময় দিতে গেলেন তিনি? উঠছে এমন প্রশ্ন। এর আগে শোনা গিয়েছিল সুশান্তের হাতে কাজ না থাকায় অবসাদে তিনি আত্মহত‍্যা করেন।

কিন্তু পরে জানা যায়, সুশান্তের হাতে কাজ তো ছিলই বরং সময়ের অভাবে বেশ কয়েকটি ছবি ছেড়েও দেন তিনি। এই সব তথ‍্য নতুন করে খুনের সম্ভাবনার দিকে ইঙ্গিত করছে, এমনটাই দাবি নেটিজেনদের একাংশের।

Back to top button