টাইমলাইনভারত

সাসপেন্ড হওয়ার পর দাড়ি কাটলেন SI ইন্তসার আলী, বহাল হলেন পুরনো পদেই

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ অবশেষে সাসপেন্ডেড SI ইন্তসার আলী (SI Intsar Ali) নিজের দাড়ি কামিয়েই নিলেন। দাড়ি কামানর পর ওনাকে আবার নিজের পদে বহাল করা হয়েছে। ইন্তসার আলী আইন না মেনে দাড়ি রাখার জন্য সাসপেন্ড হয়েছিলেন। এই মামলায় জমিয়েত উলমার পদাধিকাররা শুক্রবার জেলাশাসক শকুন্তলা গৌতম আর এসপি অভিষেকের সাথে সাক্ষাৎ করেছিল। পদাধিকাররা বলেছিল যে, ইন্তসার আলী নিজের ধর্ম পালন করার জন্য স্বাধীন।

জানিয়ে দিই, উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) বাগপত জেলার রামালা থানায় নিযুক্ত সাব ইনস্পেকটর ইন্তসার আলী  বিনা অনুমতিতে বড় দাড়ি রাখার কারণে সাসপেন্ড হন। ওনাকে সাসপেন্ড করে পুলিশ লাইনে পাঠানো হয়েছিল। শোনা যায় যে, পুলিশ কমিশনার দারোগা ইন্তসার আলীকে তিনবার দাড়ি কেটে ফেলার কথা বলেছিলেন। এর সাথে সাথে দাড়ি রাখার জন্য ওনাকে পুলিশ বিভাগের থেকে অনুমতি নেওয়ার জন্যও বলা হয়েছিল, কিন্তু বিগত কয়েকমাস ধরে দারোগা ইন্তসার আলী নির্দেশকে অমান্য করা দাড়ি বাড়াতে থাকেন।

সাহারানপুরের বাসিন্দা দারোগা ইন্তসার আলী উত্তর প্রদেশ পুলিশের সাব ইনসপেক্টর পদে ভর্তি হয়েছিলেন আর বিগত তিনবছর ধরে তিনি বাগপত জেলায় কর্মরত। লকডাউনের আগেই ওনাকে রামালা থানায় নিযুক্ত করা হয়। পুলিশ বিভাগের আইন অমান্য করে দীর্ঘ দাড়ি রাখার জন্য তিনি চর্চায় উঠে এসেছিলেন।

এই বিষয়ে এসপি অভিষেক সিং বলেছিলেন, পুলিশ ম্যানুয়াল অনুযায়ী, পুলিশে মোতায়েন থাকার সময় শিখ সম্প্রদায়ের পুলিশকর্মী বাদ দিয়ে অন্য কোনও পুলিশকর্মী অথবা আধিকারিকরা দাড়ি রাখতে পারবেন না, যদি কেউ রাখতেই চায় তাহলে ওনাকে প্রশাসনের কাছ থেকে অনুমতি নিতে হবে। কিন্তু দারোগা ইন্তসার আলী অনুমতি ছাড়াই দীর্ঘদিন ধরে দাড়ি বাড়িয়েই চলছিলেন। অনেক বোঝানো আর নোটিশ দেওয়ার পরেও উনি পুলিশের আইন মানেন নি। আর এই কারণে দারোগার বিরুদ্ধে অ্যাকশন নেওয়া হয়েছে।

যদিও, SI ইন্তেসার আলী বলেন, তিনি ২০১৯ এর নভেম্বর মাস থেকে দাড়ি বাড়ানোর জন্য অনুমতি নেওয়ার চেষ্টা চালাচ্ছেন, কিন্তু এখনো পুলিশ বিভাগ ওনাকে দাড়ি বাড়ানোর অনুমতি দেয়নি। আপাতত সমস্ত বিতর্ক থামিয়ে দারোগা ইন্তসার আলী নিজের দাড়ি কেটেছেন আর নিজের পদে পুনরায় বহাল হয়েছেন।

Back to top button