টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

‘বিধায়ক থাকলে তো পিএসি চেয়ারম্যান হবেন” মুকুল রায়কে হুঁশিয়ারি শুভেন্দু অধিকারীর

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ মুকুল রায়ের (Mukul Roy) বিধায়কপদ খারিজ করাটা কার্যত চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)। আর এই কারণেই তিনি মুকুল রায় বিজেপি ছাড়ার পর থেকেই হাত ধুয়ে পিছনে পড়েছেন। ইতিমধ্যে মুকুল রায় PAC চেয়ারম্যান হিসেবে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। আর সেই খবর প্রকাশ্যে আসতেই বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী হুঁশিয়ারির সুরেই বললেন, ‘মুকুল রায় বিধায়ক থাকলে তো পিএসির চেয়ারম্যান হবে।” শুভেন্দুবাবুর এই হুঁশিয়ারিতে স্পষ্ট যে, তিনি সহজেই মুকুল রায়কে ছাড়ছেন না।

suvendu adhikari

এদিন সাংবাদিকদের শুভেন্দু অধিকারী বলেন, ‘সময় নষ্ট না করে মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে দলত্যাগ বিরোধী আইন প্রয়োগ করা উচিৎ। উনি তৃণমূলের বরাদ্দ ১৪টি সদস্যের মধ্যে একটিতে পিএসি-র মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। বিজেপির প্রতীকে জয়লাভ করে দল ছেড়ে তিনি তৃণমূলে নাম লিখিয়েছেন। ওনার এই কাজই আমার অভিযোগকে সত্য প্রমাণ করার জন্য যথেষ্ট। ওনার সদস্যপদই থাকবে না। পিএসি তো দূরের কথা।”

উল্লেখ্য, মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নিয়ে ইতিমধ্যে বিধানসভার অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে কৃষ্ণনগর উত্তরের বিধায়কের সদস্যপদ বাতিল করার আবেদন জানিয়েছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। তিনি জানান, ‘১৬ তারিখ শুনানি হবে, আমাদের সেই শুনানিতে ডেকেছেন স্পিকার। আমরা সমস্ত তথ্য পেশ করব। উনি বেশিদিন বিধায়কই থাকবেন না, পিএসি তো দূর অস্ত। ওনার বিধায়কপদ খারিজের লড়াইয়ে আমরা আরও একধাক এগিয়ে গেলাম।”

বলে দিই, রীতি অনুযায়ী পিএসি চেয়ারম্যানের পদ বিরোধী দলই পাবে। তবে শাসক দল প্রভাব খাটিয়ে এবার সেই জায়গায় মুকুল রায়কে বসাতে চাইছে। মঙ্গলবার বিধানসভার স্পিকার বিজেপিকে চিঠি দিয়ে জানিয়েছেন যে, এই বিষয়ে তাঁর সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত হবে। আর এই কারণেই বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী এই নিয়ে আগেভাগে কোনও মন্তব্য করতে চাইছেন না।

শুভেন্দুবাবু বলেছেন, ‘দীর্ঘদিনের রীতি এটাই। তবে আমরা স্পিকারের সিদ্ধান্তের জন্য অপেক্ষা করব। তারপর প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেব।” বিজেপির সূত্রের খবর অনুযায়ী, তাঁদের মনোনীত বিধায়ক অশোক লাহিড়ীকে ওই পদ না দেওয়া হলে তাঁরা সমস্ত কমিটি বয়কট করবে, এছাড়াও আইনি পদক্ষেপ এবং আন্দোলনে নামবে।

Related Articles

Back to top button