টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

‘বাংলায় বিজেপি ক্ষমতায় এলে পাঠ্যপুস্তকে অন্তর্ভুক্ত হবে গীতা’, বড় দাবি শুভেন্দু অধিকারীর

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ সম্প্রতি, গুজরাটে (Gujrat) পাঠ্যপুস্তকে ‘গীতা’ ধর্মগ্রন্থকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে আর এবার গুজরাটের ন্যায় বাংলাতেও গীতার অন্তর্ভুক্তি ঘটবে বলে দাবি করে বসলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)। বিজেপি (BJP) নেতার দাবি, “গুজরাটে স্কুলগুলিতে গীতার অন্তর্ভুক্তি ঘটানো হয়েছে। সে কারণে সেখানকার বাচ্চা ছেলে-মেয়েরা গীতার প্রতিটি বাণী শিখতে পারছে। পরবর্তী সময়ে আমাদের বাংলাতে বিজেপি ক্ষমতায় আসলে পাঠ্যপুস্তকে গীতাকে অন্তর্ভুক্ত করা হবে।” একইসঙ্গে গীতা প্রসঙ্গে এদিন স্বামী বিবেকানন্দের (Swami Vivekananda) মতবাদ তুলে ধরেন শুভেন্দু অধিকারী। তিনি বলেন, “নিজের ধর্মের প্রতি আস্থাশীল হওয়ার পাশাপাশি অন্যের ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়ার ব্যাপারে মত প্রকাশ করেন স্বামী বিবেকানন্দ।” একইসঙ্গে এদিন পশ্চিম মেদিনীপুরে (Paschim Medinipur) চন্দ্র কোনায় কর্মসূচি থেকে রাজ্যের শাসকদলের বিরুদ্ধে একের পর এক কটাক্ষ ছুড়ে দেন তিনি।

উল্লেখ্য, গরু পাচার কাণ্ডে এদিন সিবিআইয়ের পেশ করার চার্জশিটে নাম রয়েছে অনুব্রত মণ্ডলের দেহরক্ষী সায়গল হোসেনের। আবার একই সঙ্গে অনুব্রত মণ্ডলকে এদিন জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিজাম প্যালেসে ডেকে পাঠায় কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা। এ প্রসঙ্গে শুভেন্দু অধিকারীর কটাক্ষ, “কয়লার পাশাপাশি গরু পাচারেও বড় দুর্নীতি হয়েছে। তবে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে অমিত শাহ দায়িত্ব গ্রহণ করার পর এই দুর্নীতি বহু অংশে দূর করা গিয়েছে। অতীতে গরু পাচার সম্পর্কিত যে দুর্নীতি হয়েছে, তাতে শাসক দলের নেতাদের পাশাপাশি অনেক পুলিশ কর্মীও জড়িত রয়েছে।” অনুব্রত মণ্ডলের পাশাপাশি এদিন রোজভ্যালি মামলায় তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের জামিন বাতিলের বিষয়েও মন্তব্য প্রকাশ করেন শুভেন্দু।

সম্প্রতি, এসএসসি দুর্নীতি মামলায় ইডির হাতে গ্রেফতার হন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। এরপর থেকেই দুর্নীতি মামলা ক্রমশ নাম উঠে এসেছে একাধিক তৃণমূল নেতা নেত্রীদের। এর মাঝে এদিন শাসকদলের বহু নেতা মন্ত্রীদের সম্পত্তি বৃদ্ধি নিয়ে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট, যা নিয়ে এদিন বিজেপি নেতা বলেন, “বিগত বেশ কয়েক বছর ধরে শাসকদলের নেতা-নেত্রীদের সম্পত্তি বহু গুনে বেড়ে চলেছে। এ প্রসঙ্গে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। এতে ইডি তদন্ত করলে আমি খুশি হব। যেভাবে এরা দুর্নীতি করে নিজেদের সম্পত্তি বাড়িয়ে চলেছে, তার তদন্ত হোক।”

Related Articles