টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গবিধানসভা নির্বাচন

কেন্দ্রের বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়ার প্রকল্পকে ‘টিকাশ্রী” বলে না চালিয়ে দেন মুখ্যমন্ত্রীঃ শুভেন্দু অধিকারী

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ গতকাল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ঘোষণা করে বলেছিলেন যে আগামী ১৬ জানুয়ারি থেকে গোটা ভারতে টিকাকরণ অভিযান শুরু হবে। তবে, প্রথমে দেশের ৩ কোটি স্বাস্থ্যকর্মী এবং ফ্রন্টলাইন কর্মীদেরই টিকা দেওয়া হবে। এরপর দেশের ৫০ কোটি করোনায় আক্রান্ত গুরুতর রোগীদের টিকা দেওয়া হবে। যদিও দ্বিতীয় ধাপে কবে টিকা দেওয়া হবে সেটি এখনো পরজন্ত খোলসা করে বলে হয় নি।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ঘোষণা ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেন যে রাজ্যের সবাইকে কোভিড এর ভ্যাকসিন বিনামূল্যে দেওয়া হবে। এই মর্মে তিনি একটি পত্রও জারি করেছেন। মুখ্যমন্ত্রীর তরফ থেকে জারি করা ওই পত্রে করোনা মহামারীর মধ্যে মানুষের সাহায্যে ঝাঁপিয়ে পড়ার জন্য রাজ্যের পুলিশ কর্মী, বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের কর্মী, হোম গার্ড সমেত সবাইকে ধন্যবাদ জানানো হয়েছে। তিনি এও জানিয়েছেন যে, এদের সবার কাছে করোনার টিকা পৌঁছে দেওয়া হবে।

আজ পুরুলিয়া থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে এই নিয়ে তুমুল আক্রমণ করেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী। তিনি পুরুলিয়ার সভা থেকে বলেন, ‘কেন্দ্রের প্রতিটি প্রকল্পকে মমতা সরকার নিজের বলে বেমালুম চালিয়ে দিচ্ছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রী আগেই জানিয়েছন যে দেশের সবাইকে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে, প্রথমে ৩ কোটি করোনার যোদ্ধারা এই ভ্যাকসিন পাবেন। পরে আরও ২৭ কোটি মানুষকে দেওয়া হবে করোনার ভ্যাকসিন।”

শুভেন্দু অধিকারী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমণ করে বলেন, ‘গতকাল প্রধানমন্ত্রী টিকাকরণের কথা ঘোষণা করতেই আজ সকালে মুখ্যমন্ত্রী চিঠি লিখে রাজ্যে করোনার ভ্যাকসিন বিনামূল্যে দেবেন জানিয়েছেন। আমি তো ভাবছি, উনি আবার কেন্দ্রের বিনামূল্যে টিকা দেওয়ার প্রকল্পকে ‘টিকাশ্রী” প্রকল্প না বলে চালিয়ে দেন।”

Back to top button